আফগানদের হারিয়ে প্রতিশোধ নিল শ্রীলঙ্কা
আফগানদের হারিয়ে প্রতিশোধ নিল শ্রীলঙ্কা

সংগৃহীত ছবি

এশিয়া কাপ 

আফগানদের হারিয়ে প্রতিশোধ নিল শ্রীলঙ্কা

অনলাইন ডেস্ক

এশিয়া কাপের গ্রুপ পর্বে আফগানিস্তানের কাছে পাত্তাই পায়নি শ্রীলঙ্কা। আফগানরা ৮ উইকেটে ম্যাচ জেতে প্রায় ১০ ওভার হাতে রেখেই। সেই হারের প্রতিশোধ সুপার ফোরে এসে তুলল লঙ্কানরা। আজ আফগানিস্তানকে ৫ বল হাতে রেখে ৪ উইকেটে হারিয়েছে দাসুন শানাকার দল।

শারজায় টস জিতে আগে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয় শ্রীলঙ্কা। তবে আগে বোলিং করার সিদ্ধান্ত বুমেরাং হয়েই আসে তাদের জন্য। আফগানরা উদ্বোধনী জুটিতেই তুলে ফেলে ৪৬ রান। হজরতুল্লাহ জাজাই ১৩ রান করে ফিরলে ভাঙে সে জুটি।

এরপর ইব্রাহিম জাদরানকে নিয়ে ঝড়ের বেগে রান তুলতে থাকেন ওপেনার রহমানউল্লাহ গুরবাজ।

জাদরান একটু রয়ে-সয়ে খেললেও গুরবাজের ব্যাট কথা বলছিল খোলা তরবারির মতো। লঙ্কান বোলারদের নাভিশ্বাস তুলে চাড়েন এই ওপেনার। মাত্র ৪৫ বলে ৮৪ রানের বিস্ফোরক এক ইনিংস খেলেন তিনি। যেই ইনিংস তিনি সাজান ৪ চার আর ৬ ছয়ের মারে।

গুরবাজ যখন ফেরেন তখন স্কোরবোর্ডে আফগানদের সংগ্রহ ছিল ১৩৯ রান। হারে আরও ৮ উইকেট এবং প্রায় পাঁচ ওভারের মতো বাকি থাকায় তখনো দুই শ রানের সংগ্রহের স্বপ্ন দেখছিল আফগানরা। তবে শেষের দিকে বেশ দারুণ বোলিং করেন লঙ্কান বোলাররা। শেষ ৫ ওভারে মাত্র ৩৭ রান দেন থিকসানা-হাসারাঙ্গারা। ফলে ১৭৫ রানেই থামে আফগানদের রানের চাকা।

শ্রীলঙ্কার পক্ষে ৩৭ রান খরচায় ২ উইকেট নেন দিলশান মাদুশাঙ্কা। একটি করে উইকেট পকেটে পোরেন মহেশ থিকশানা এবং আসিতা ফার্নান্দো। কোনো উইকেট না পেলেও কিপটে বোলিং করেন হাসারাঙ্গা।  গুরবাজের পর আফগানদের হয়ে সর্বোচ্চ রান আসে ইব্রাহিম জাদরানের ব্যাট থেকে। ৩৮ বলে ৪০ রান করেন তিনি।

বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শ্রীলঙ্কা পায় দারুণ এক শুরু। বাংলাদেশের বিপক্ষে জ্বলে ওঠা ওপেনার কুশল মেন্ডিস এদিন ছিলেন আরও ভয়ংকর। আউট হওয়ার আগে ১৯ বলে ৩৬ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। তিনি ফিরতেই ৬২ রানে ভাঙে লঙ্কানদের উদ্বোধনী জুটি।

এরপর দ্রুতই পাথুম নিশাঙ্কা এবং চারিথ আসালাঙ্কাকে হারালেও জয়ের পথ থেকে বিচ্যুত হয়নি শ্রীলঙ্কা। এর বড় কৃতিত্ব দানুশকা গুনাথিলাকার। মাঝে ২০ বলে ৩৩ রানের গুরুত্বপূর্ণ এক ইনিংস খেলেন তিনি। শেষে এসে আউট হলেও ভানিন্দু হাসারাঙ্গাকে নিয়ে জয় নিশ্চিত করেন ভানুকা রাজাপাকসে। সাজঘরে ফেরার আগে ১৪ বলে ৩১ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন তিনি। আর দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেয়া হাসারাঙ্গা  অপরাজিত থাকেন ১৬ রান করে।

আফগানদের পক্ষে সর্বোচ্চ ২ উইকেট পান মুজিব উর রহমান। একটি করে উইকেট পান নাভিন উল হক, রশিদ খান এবং মোহাম্মদ নবি।   

news24bd.tv/সাব্বির