বিএনপির সাথে জোটে যেতে চায় জাতীয় পার্টি

বিএনপির সাথে জোটে যেতে চায় জাতীয় পার্টি

আরেফিন শাকিল

নির্বাচন সামনে রেখে বিএনপির সাথে জোটে যেতে চায় জাতীয় পার্টি। নিউজ টোয়েন্টিফোরকে একান্ত সাক্ষাৎকারে এসব কথা জানান দলটির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। জোটে আসার ইচ্ছাকে স্বাগত জানিয়েছে বিএনপি। তবে জোটের সম্ভাবনাকে গুরুত্ব দিচ্ছে না আওয়ামী লীগ।

একজন রাজনীতি বিশ্লেষক বলছেন, জাতীয় পার্টি- বিএনপি জোট হলে ক্ষমতাসীন দল চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে।

রাজনীতিতে বরাবরই নাটকীয় চরিত্রের নাম জাতীয় পার্টি। র্দীঘদিন ধরে দলটি আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোটের শরিক থাকলেও একাদশ সংসদ নির্বাচনের পর দূরুত্ব বাড়ে দুই দলের।

নির্বাচন কমিশনের সংলাপে যা আরও স্পষ্ট হয়।

ক্ষমতাসীন দল তিনশ আসনে ইভিএমের দাবি জানালেও জাতীয় পর্টি ইভিএম ব্যবহারের বিপক্ষে অবস্থান নেয়।  

নিউজ টোয়েন্টিফোরের সাথে একান্ত আলাপে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জানান, ২০১৮ সালের নির্বাচনে জাতীয় পার্টি সুবিধাভোগী হলেও তারা আর প্রশ্নবিদ্ধ ভোট চান না।

বিএনপির সাথে জোট হবার ইঙ্গিত দিয়ে জিএম কাদের বলেন, ২০১৮ সালের নির্বাচনের আগে সুনিদিষ্ট ইস্যুতে বিএনপির সাথে আলোচনার সম্ভাবনা আছে।

জিএম কাদের বলেন, ২০১৮ সালের নির্বাচন টা সত্যিকার অর্থে ভালো হয়নি। এটাতে আমরা সন্তুষ্ট হতে পারিনি।

জাতীয় পার্টির এমন মনোভাবকে স্বাগত জানিয়েছেন বিএনপি নেতা ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু। তিনি বলেন, আমরা তো অলরেডি কল দিয়ে রেখেছি, যে আমরা আন্দোলন করে এই সরকারকে পতন ঘটাবো। জাতীয় পার্টি যদি আসে তো তাদেরকে ওয়েলকাম করা হবে। আওয়ামী লীগকে দুর্বল করার জন্য যত বেশি আন্দোলন করা হবে যত বেশি লোক হবে তত ভালো হবে।

তবে বিএনপির সাথে জাপার জোটের সম্ভাবনাকে গুরুত্ব দিচ্ছে না ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ।

রাজনীতি বিশ্লেষক আবু আলম শহীদ খান বলছেন, জামায়াতের পাশাপাশি জাতীয় পার্টি বিএনপির সাথে যুক্ত হলে ভোটের অংক অনেক বদলে যাবে।

জাতীয় পার্টির এমন অবস্থানকে ভোটের আগে সরকারের কাছে নিজেদের গুরুত্ব বাড়ার কৌশল বলছেন কোন কোন বিশ্লেষক।  

news24bd.tv/কামরুল