চালের কার্ড করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতিতে টাকা নেওয়ার অভিযোগ
চালের কার্ড করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতিতে টাকা নেওয়ার অভিযোগ

চালের কার্ড করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতিতে টাকা নেওয়ার অভিযোগ

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় সরকার ঘোষিত ১৫ টাকায় চাল দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে কয়েকজন ইউপি সদস্য আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের (ইউএনও) কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।  

অভিযোগে বলা হয়েছে, চালের কার্ড করে দেওয়ার নাম করে একেক জনের কাছ থেকে ৫০০ থেকে তিন হাজার টাকা পর্যন্ত হাতিয়ে নেয়া হয়েছে।

জানা যায়, প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ১ সেপ্টেম্বর থেকে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় ১৫ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রি করা হচ্ছে।

একই সঙ্গে খোলাবাজারে (ওএমএস) বিক্রির জন্য চালের বরাদ্দও দ্বিগুণ করা হয়েছে। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে আলমডাঙ্গা উপজেলার বেলগাছি ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদুল হাসান চঞ্চলের ঘনিষ্ঠ লোকজন অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছেন। তারা চালের কার্ড করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে দরিদ্র মানুষের কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উপজেলার ফরিদপুর গ্রামের রাকিবুল ইসলামের কাছ থেকে এক হাজার, সোনার কাছ থেকে এক হাজার ১০০, হেলালের কাছ থেকে এক হাজার, মতিয়ারের কাছ থেকে এক হাজার, মনিরের কাছ থেকে এক হাজার, ডাবলুর কাছ থেকে এক হাজার, বেলগাছি গ্রামের লিপুর কাছ থেকে এক হাজার ১০০, রইতনের কাছ থেকে এক হাজার ১০০, সোহরাবের কাছ থেকে ৩ হাজার, হাসিনা খাতুনের কাছ থেকে ৫০০ টাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে।

অনেকের ধারণা পুরো ইউনিয়নজুড়েই এই চক্র চেয়ারম্যানের নাম ভাঙ্গিয়ে অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে।

বেলগাছি ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদুল হাসান চঞ্চল বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর গত ১ সেপ্টেম্বর ইউনিয়নবাসীকে সতর্ক করতে মাইকিং করা হয়েছে। কেউ যেন প্রতারণার শিকার না হয়। অর্থ হাতিয়ে নেওয়া চক্রের দু'য়েকজন তার দলের লোক বলেও স্বীকার করেন চেয়ারম্যান।

news24bd.tv/কামরুল

সম্পর্কিত খবর