বান্ধবীর সঙ্গে কথা বলায় স্কুলছাত্রকে ‘পেটালেন’ প্রধানশিক্ষক 
বান্ধবীর সঙ্গে কথা বলায় স্কুলছাত্রকে ‘পেটালেন’ প্রধানশিক্ষক 

সংগৃহীত ছবি

বান্ধবীর সঙ্গে কথা বলায় স্কুলছাত্রকে ‘পেটালেন’ প্রধানশিক্ষক 

অনলাইন ডেস্ক

যশোরের শার্শা সরকারি পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বারান্দায় দাঁড়িয়ে বান্ধবীর সঙ্গে কথা বলায় এক স্কুলছাত্রকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে স্কুলটির প্রধানশিক্ষকের বিরুদ্ধে। রোববার (৪ সেপ্টেম্বর) সকালে এ ঘটনা ঘটে।

ওই ছাত্র শার্শা উপজেলার চটকাপোতা গ্রামের আনছার আলীর ছেলে। ঘটনার পর আহত ছাত্রকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ছেলেকে নির্যাতনের বিচার চেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন ওই ছাত্রের বাবা।  

ওই ছাত্রের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সে রোববার সকালে ক্লাস শেষ করে শ্রেণিকক্ষ থেকে বের হয়ে তার বান্ধবীর সঙ্গে বারান্দায় দাঁড়িয়ে কথা বলছিল। এ সময় স্কুলের প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম তাদের দেখে ফেলেন। এরপর তিনি তাকে একটি শ্রেণিকক্ষে ডেকে নিয়ে লাঠি দিয়ে মারধর করেন।

 

স্কুলছাত্রের বাবা বিষয়টি নিশ্চত করে বলেন, এর আগেও অনেক ছাত্রকে এভাবে মারধর করেন ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক।  

তবে প্রধান শিক্ষক শহিদুল ইসলাম মারধরের অভিযোগটি অস্বীকার করেন। তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে বলে জানান।  

শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নারায়ণ চন্দ্র পাল জানান, তিনি লিখিত অভিযোগ পেয়েছেন এবং এ ঘটনা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  

news24bd.tv/ইস্রাফিল