বিশ্বকাপের আগে অনেক প্রশ্নের উত্তর পাওয়া বাকি রোহিতের 
বিশ্বকাপের আগে অনেক প্রশ্নের উত্তর পাওয়া বাকি রোহিতের 

সংগৃহীত ছবি

বিশ্বকাপের আগে অনেক প্রশ্নের উত্তর পাওয়া বাকি রোহিতের 

অনলাইন ডেস্ক

এশিয়া কাপের সুপার ফোরে পাকিস্তানের পর শ্রীলঙ্কার কাছেও হার। আসরের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা কাগজে-কলমের হিসাবে এখনও টুর্নামেন্টে টিকে থাকলেও, কার্যত এশিয়া কাপ থেকে বিদায় প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেছে ভারতের।

অথচ ফেবারিট হিসেবেই টুর্নামেন্ট শুরু করেছিল ভারত। তারকা পেসার জসপ্রিত বুমরাহ দলে না থাকলেও বাকিদের নিয়ে টুর্নামেন্টের শুরুটাও দারুণ হয় রোহিত শর্মার দলের।

তবে সুপার ফোরে যেতেই বিবর্ণ ভারত। পরপর দুই ম্যাচে হার। একসঙ্গে দুই-তিনটি দল গড়ার ক্ষমতা থাকলেও, এশিয়া কাপে এসে ভারত বুঝল এখনও অনেক প্রশ্নের উত্তর পাওয়া বাকি তাদের।

পরপর দুই হারের পর ভারতের দল নির্বাচন নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন।

শ্রীলঙ্কা ম্যাচের পরেই যেমন বলাবলি হচ্ছে, বোলিং যদি নাই করবেন, তবে কেন একাদশে দীপক হুডা? কেন অভিজ্ঞ দীনেশ কার্তিককে বসিয়ে রেখে অফ-ফর্মে ভোগা ঋষভ পন্থকে খেলানো হচ্ছে। শ্রীলঙ্কার কাছে হারের পর এসব প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা। ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে তিনি এও জানালেন, টি২০ বিশ্বকাপের আগে তারা ইচ্ছে করেই পরীক্ষা-নিরীক্ষার রাস্তায় হেঁটেছেন।

অস্ট্রেলিয়ায় এবারের টি২০ বিশ্বকাপ শুরু হবে অক্টোবরে। সংবাদ সম্মেলনে রোহিত জানিয়েছেন, এই বিশ্বকাপের আগে এখনও অনেক প্রশ্নের উত্তর পাওয়া বাকি তার, ‘বিশ্বকাপের দল ৯০-৯৫ শতাংশ তৈরি। কিছু ছোটখাটো পরিবর্তন হবে। ইচ্ছে করেই পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছি। এশিয়া কাপের আগেই পরিকল্পনা ছিল, চারজন পেসার এবং দুজন স্পিনার নিয়ে খেলব। তবু আমি দেখতে চেয়েছিলাম, তিনজন পেসার খেলালে কী হতে পারে। ’

এরপর রোহিত বলেন, ‘ভালো দলের বিরুদ্ধে নিজেদের পরীক্ষার মধ্যে ফেলতে হবে। চতুর্থ পেসার হিসেবে দলের সঙ্গে যে (আবেশ খান) ছিল, তাকে অসুস্থতার কারণে একাদশে নেয়া যায়নি। আগের ম্যাচগুলোতে অনেক প্রশ্নের উত্তর পেয়েছি। এখনও অনেক প্রশ্নের উত্তর পাওয়া বাকি। কখনই বলা যায় না, একটা দল নিয়ে আমরা খেলব। এরপর দুটি সিরিজ রয়েছে আমাদের। তারপর টি২০ বিশ্বকাপ। জানি না কবে দল ঘোষণা হবে। যত দিন না সেটা হচ্ছে, ততদিন নতুন নতুন ক্রিকেটার খেলিয়ে যাব। ’

এশিয়া কাপে ভরাডুবির পর ভারতীয়রা ভীষণ হতাশ। সবাই বিশ্বকাপ নিয়ে উদ্বিগ্ন। যদিও রোহিত আশ্বস্ত করলেন সবাইকে। তিনি বলেন, ‘দুই ম্যাচ হেরেছি মানে বিশাল চিন্তায় পড়ে গিয়েছি, সেটা একেবারেই নয়। ড্রেসিংরুমে হার নিয়ে কোনো নেতিবাচক কথা হয় না। গত বিশ্বকাপের পর ভালো খেলেছি এবং জিতেছি। তবে এরকম সময় (বাজে) আসতেই পারে। ’ 

news24bd.tv/সাব্বির