সুজন বলছেন, বাংলাদেশ বিশ্বকাপও জিততে পারে 
সুজন বলছেন, বাংলাদেশ বিশ্বকাপও জিততে পারে 

সংগৃহীত ছবি

সুজন বলছেন, বাংলাদেশ বিশ্বকাপও জিততে পারে 

অনলাইন ডেস্ক

টি২০ ক্রিকেটে বড়ই বিবর্ণ বাংলাদেশ। কিছুতেই এই ফরম্যাটের সঙ্গে যেন মানিয়ে উঠতে পারছে না ক্রিকেটাররা। এশিয়া কাপে তো গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছে সাকিব আল হাসান দল। অথচ জাতীয় দলের টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন বলছেন, এই দলটা নাকি বিশ্বকাপও জিততে পারে।

বিশ্বকাপের আগে নিউজিল্যান্ডে একটি ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। তাসমান পাড়ের উদ্দেশে দেশ ছাড়ার আগে আগামী ১২ সেপ্টেম্বর থেকে টি২০ দলের টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট শ্রীধরন শ্রীরামের অধীনে মিরপুরে চলবে বিশেষ ক্যাম্প। তার আগে আজ গণমাধ্যমের মুখোমুখি সুজন। সেখানেই সুজন জানালেন, টি২০ বিশ্বকাপ নিয়ে নিজের ভাবনার কথা।

সুজন বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য টি২০ ফরম্যাটে উন্নতি করছি কি-না। ছেলেদের মাথায় এই ফরম্যাট ছড়িয়ে দিতে চাই। আমাদের অনেকে এই ফরম্যাটের কারণে  তাচ্ছিল্য করে। আমাদের মধ্যে আত্মবিশ্বাস আছে ভালো করার। আমি নিজে ইতিবাচক মানুষ, তাই ইতিবাচক থাকার চেষ্টা করি সবসময়। আমি মনে করি বিশ্বকাপে আমরা চ্যাম্পিয়নও হতে পারি। যদিও সে রাস্তাটা মোটেও সহজ হবে না। হয়তো ৬ মাস কিংবা ১ বছর সময় লাগবে। ’

কুড়ি ওভারের সংস্করণে সাফল্য পেতে দলে আমূল পরিবর্তন এনেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এশিয়া কাপ থেকে সবাই নতুন এক বাংলাদেশ দেখবে বলে স্বপ্ন দেখিয়েছিল বোর্ড। তবে প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে পুরনো বাংলাদেশকেই দেখেছে সবাই। যদিও দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে কিছুটা উন্নতি ছিল দলের মানসিকতায়।

সেই ধারা অব্যাহত রাখতে চায় বাংলাদেশ। সামনে নিউজিল্যান্ড এবং পাকিস্তানের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজে টাইগারদের খেলতে হবে ভয়ডরহীনভাবে, সেজন্য যদি প্রথম বলেও আউট হতে হয় তাহলেও কোনো সমস্যা দেখছেন না সাবেক বাংলাদেশ অধিনায়ক। সুজনের চাওয়া সবাই স্বাধীনতা নিয়ে খেলুক এবং আগ্রাসী ক্রিকেটই খেলুক।

সুজন বলেন, ‘আমি চাই ব্যাটাররা সাহসিকতা নিয়ে খেলুক। এই ফরম্যাটের জন্য স্বাধীনতা নিয়ে আগ্রাসী ক্রিকেট খেলতে চাই আমরা। এমনভাবে খেলার সময় প্রথম বলে আউট হতেই পারে ব্যাটার। তাতেও কোনো সমস্যা দেখছি না আমি। নিউজিল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে ১-২টা ম্যাচ নাও জিততে পারি আমরা। ’

ইনজুরি সমস্যার কারণে এশিয়া কাপে বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারকে পায়নি বাংলাদেশ। তাদের অভাব ভালোই টের পেয়েছে দল। তাদেরকে মিস করেছেন টিম লিডার সুজনও। এ বিষয় জানাতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘ফিটনেস ঠিক হলে সবাই দলে ফিরবে। হাসানকে মিস করেছি। রাব্বি-সোহান-লিটন এরা সবাই ফিরলে দল আরো শক্তিশালী হবে। ’

news24bd.tv/সাব্বির