ক্রিমিয়ার রুশ বিমান ঘাঁটিতে হামলার দায় স্বীকার ইউক্রেনের
ক্রিমিয়ার রুশ বিমান ঘাঁটিতে হামলার দায় স্বীকার ইউক্রেনের

সংগৃহীত ছবি

ক্রিমিয়ার রুশ বিমান ঘাঁটিতে হামলার দায় স্বীকার ইউক্রেনের

অনলাইন ডেস্ক

প্রায় মাসখানেক আগে ক্রিমিয়া উপত্যকায় রাশিয়ার একটি সামরিক বিমান ঘাঁটিতে হামলা চালানো হয়। অবশেষে এ হামলার দায় স্বীকার করেছে ইউক্রেন। খবর বিবিসির।

প্রতিবেদনে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যমটি জানায়, গত আগস্টে ক্রিমিয়া উপত্যকায় রুশ বাহিনীর সাকি বিমান ঘাঁটিতে অজ্ঞাত হামলায় একজন নিহত হন।

হামলার পর এর দায় স্বীকার করেনি ইউক্রেন। এমনকি রুশ সৈন্যদের ফেলে দেওয়া সিগারেট থেকে বিস্ফোরণ হয়েছিল বলে জানায় কিয়েভ। তবে হামলার প্রায় এক মাস পরে এর দায় স্বীকার করেছে ইউক্রেন।

ইউক্রেনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা ইউক্রিনফর্ম জানিয়েছে, কিয়েভের শীর্ষ কমান্ডার ভ্যালেরি জালুঝনি বলেন, ‘৯ আগস্ট রুশ ঘাঁটি লক্ষ্য করে ইউক্রেনীয় রকেটগুলো ছোঁড়া হয়।

এর মধ্যে সাকি বিমানঘাঁটিও ছিল। ’

তিনি আরও বলেন, ‘ইউক্রেনের বিরুদ্ধে আক্রমণ চালানোর জন্য সাকি ঘাঁটি ব্যাপকভাবে ব্যবহার করছে মস্কো। আর এ হামলায় অন্তত ১০টি রুশ যুদ্ধবিমান ধ্বংস হয়েছে। ’

‘হামলায় রাশিয়ার সামরিক সক্ষমতাকে ক্ষতিগ্রস্ত করার পাশাপাশি তাদের মনোবল ভেঙেছে। সঙ্গে আমাদের দায়মুক্তি মিলেছে,’ যোগ করেন জালুঝনি।

২০১৪ সালে ক্রিমিয়া দখল করে মস্কো। এলাকাটি রাশিয়ার পর্যটকদের কাছে খুবই জনপ্রিয়। ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধ শুরুর পর প্রথমবারের মতো ক্রিমিয়ায় হামলার কথা জানলো কিয়েভ।

news24bd.tv/মামুন