ইউক্রেনীয় শিশুদের জোরপূর্বক রাশিয়ায় স্থানান্তরের অভিযোগ জাতিসংঘের
ইউক্রেনীয় শিশুদের জোরপূর্বক রাশিয়ায় স্থানান্তরের অভিযোগ জাতিসংঘের

সংগৃহীত ছবি

ইউক্রেনীয় শিশুদের জোরপূর্বক রাশিয়ায় স্থানান্তরের অভিযোগ জাতিসংঘের

অনলাইন ডেস্ক

ইউক্রেনীয়দের অধিকৃত অঞ্চলে নিয়মতান্ত্রিক নিরাপত্তা চেক করার নামে মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে রুশ বাহিনী। এছাড়াও ইউক্রেনীয় শিশুদের জোরপূর্বক রাশিয়ায় পাঠানো হচ্ছে বলে নিরাপত্তা পরিষদে রাশিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক সহকারী মহাসচিব ইলজে ব্র্যান্ডস কেহরিস। তবে এসব অভিযোগের সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন রাশিয়ার জাতিসংঘের রাষ্ট্রদূত ভ্যাসিলি নেবেনজিয়া।

বুধবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউক্রেনে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ তোলে ইলজে ব্র্যান্ডস বলেন, ‘রাশিয়া-অধিকৃত অঞ্চলে বা রাশিয়ান ফেডারেশনে সঙ্গীহীন শিশুদের জোরপূর্বক স্থানান্তর করার বিশ্বাসযোগ্য অভিযোগ রয়েছে।

আমরা এ ব্যাপারে উদ্বিগ্ন। তারা পিতামাতার যত্ন ছাড়াই শিশুদের রাশিয়ান নাগরিকত্ব দেওয়ার পদ্ধতি গ্রহণ করেছে। পরবর্তীতে এই শিশুদের রাশিয়ান পরিবারে দত্তক দেওয়া হবে। ’

ব্র্যান্ডস কেহরিস আরও বলেন, ‘ইউক্রেনের উপর রাশিয়ান বাহিনী একটি ‘‘পরিস্রাবণ’’ অপারেশন চালাচ্ছে।

ইউক্রেন অধিকৃত অঞ্চলে পদ্ধতিগত নিরাপত্তা চেকের নামে তারা ‘‘অসংখ্য’’ মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে। শিশুদের স্থানান্তরের সময়, রাশিয়ান সশস্ত্র বাহিনী তাদের দেহ তল্লাশি করছে। এতে কখনও কখনও জোরপূর্বক তাদের নগ্ন করা হচ্ছে। এছাড়াও ব্যক্তিগত তথ্য, পারিবারিক বন্ধন, রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি এবং আনুগত্য সম্পর্কে বিস্তারিত জিজ্ঞাসাবাদ করেছে৷ এসময় মোবাইল ডিভাইস পরীক্ষা করে তাদের ব্যক্তিগত পরিচয়সহ ছবি ও আঙুলের ছাপ নেওয়া হচ্ছে। এসময় নারী ও মেয়েরা যৌন নির্যাতনের ঝুঁকিতে রয়েছেন। ’

তবে এসব অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে প্রত্যাখ্যান করেছেন রাশিয়ার জাতিসংঘের রাষ্ট্রদূত ভ্যাসিলি নেবেনজিয়া, ‘এসব অভিযোগ ‘‘ভিত্তিহীন”। ইউক্রেনীয়রা ‘‘অপরাধী শাসন থেকে নিজেদের বাঁচাতে” দেশ থেকে পালিয়ে যাচ্ছে। ‘‘পরিস্রাবণ” লেবেল করা হয়েছিল কেবল রাশিয়ায় আসা লোকদের নিবন্ধন করার জন্য। ইউক্রেনীয় শরণার্থীদের জন্য পোল্যান্ড এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের অন্যান্য দেশেও অনুরূপ পদ্ধতি প্রয়োগ করা হয়। ’

news24bd.tv/আমিরুল

এই রকম আরও টপিক