বাছাইপর্ব আর খেলতে চায় না বাংলাদেশ
বাছাইপর্ব আর খেলতে চায় না বাংলাদেশ

বিসিবি

বাছাইপর্ব আর খেলতে চায় না বাংলাদেশ

অনলাইন ডেস্ক

টি২০ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের শেষ দুইবারের চ্যাম্পিয়ন দল বাংলাদেশ। তবে এই বাছাইপর্ব আর খেলতেই চায় না বাঘিনীরা। ২০২৩ দক্ষিণ আফ্রিকা টি২০ বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব খেলতে আজ দুবাইয়ের উদ্দেশে দেশ ছাড়ার আগে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি জানালেন এ কথা।

বাছাইপর্ব মানেই অন্যরকম এক চাপ।

একটু খারাপ খেললেই বাদ পড়ার সম্ভাবনা থাকে। নিগার তাই পরের বিশ্বকাপ খেলতে চান সরাসরি। তিনি বলেন, ‘আমরা আর বাছাইপর্ব খেলতে চাচ্ছি না। এটা বাড়তি একটা সূচি।
বাঁচামরার অবস্থা হয়ে দাঁড়ায়। বিশ্বকাপ খেলতে পারব কি-না, সে চাপও থাকে। ’

সামনে পরিকল্পনামাফিক খেলতে পারলে সরাসরিই টি২০ বিশ্বকাপ খেলতে পারবে বাংলাদেশ। কেননা নিউজিল্যান্ডে এ বছর হয়ে যাওয়া ৫০ ওভারের বিশ্বকাপের পারফরম্যান্স দিয়ে নিশ্চিত হয়েছে, সামনের উইমেনস চ্যাম্পিয়নশিপের চক্রে থাকছে বাংলাদেশ। এরই মধ্যে ঘোষণা করা হয়েছে ভবিষ্যৎ সফর পরিকল্পনাও (এফটিপি)।

আগামী তিন বছরের মধ্যে বাংলাদেশ খেলবে আটটি দলের সঙ্গে। যেখানে থাকবে ভিন্ন সংস্করণের সিরিজ। বাংলাদেশ অধিনায়কের চোখ এখন সেদিকেই, ‘এফটিপিতে এখন ঢুকে গেছি, এখন অন্য দলগুলোর সঙ্গে ওয়ানডের পাশাপাশি টি২০ও খেলতে পারব। সিরিজের পাশাপাশি পারফরম্যান্স লক্ষ্য এমন থাকবে, যাতে পরের টি২০ বিশ্বকাপে সরাসরি খেলতে পারি। ’

তবে ভবিষ্যৎ ভেবে বর্তমান ভুলে যাচ্ছেন না নিগার। সংযুক্ত আরব আমিরাতে এবারও বাছাইপর্বে চ্যাম্পিয়ন হওয়াই লক্ষ্য নিগারদের। অধিনায়ক বলেন, ‘প্রথম উদ্দেশ্যে থাকবে কোয়ালিফাই করা। আমি বলব দল হিসেবে এই দলটা অনেক দিন ধরে ক্রিকেট খেলছি একসঙ্গে। সে ক্ষেত্রে আমরা একে-অপরকে জানি। আমি মনে করি, আমাদের দলের যে সামর্থ্য আছে, আমরা যদি ধারাবাহিক পারফর্ম করতে পারি, ব্যাটাররা যদি ভালো করতে পারে, আমরাই ফেবারিট হিসেবে থাকব। ’

আট দলের এই বাছাইপর্বে বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচ খেলবে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে। আগামী ১৮ সেপ্টেম্বর আবুধাবিতে আইরিশদের বিপক্ষে মাঠে নামবে সালমা-জাহানারা। ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে আইসিসির আনুষ্ঠানিক সূচি হলেও বাংলাদেশ আগেভাগে দেশ ছাড়ল কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে।  

news24bd.tv/সাব্বির