ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই, আটক ৫
ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই, আটক ৫

সংগৃহীত ছবি

ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই, আটক ৫

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকার ধামরাইয়ে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ছিনতাই করে পালানোর সময় পাঁচজনকে আটক করে পুলিশে দিয়েছেন স্থানীয়রা। সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) ধামরাইয়ের সোমভাগ ইউনিয়ন পরিষদের পাশে দেপাশাই মডেল স্কুলের সামনে থেকে একটি মাইক্রোবাস আটকে ছিনতাইকারীদের আটক করা হয়।

আটক ব্যক্তিরা হলেন- পিরোজপুরে মো. রুবেল হোসেন (২৯), পটুয়াখালীর মো. শওকত হোসেন (৩০), ঝালকাঠির রিয়াজুল ইসলাম (২৭), একই জেলার নুরুল ইসলাম (২৮) ও নুরুল (৩০)।  

জানা যায়, রাজধানীর মিরপুর থেকে মিজান পোল্ট্রি নামে একটি দোকানের মালিকের কাছ থেকে চার লাখ ৭০ হাজার টাকা নিয়ে পিকআপ ভ্যানে করে টাঙ্গাইলে মুরগি কিনতে যাচ্ছিলেন ভুক্তভোগীরা।

তারা সাভার উপজেলার নবীনগরের কাছাকাছি পৌঁছালে ছিনতাইকারীরা মাইক্রোবাস নিয়ে পিকআপ ভ্যানের গতি রোধ করে। পরে ডিবি পরিচয়ে তাদের সবাইকে মাইক্রোবাসে তুলে চার লাখ ৬৪ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় ছিনতাইকারীরা। পরে তাদের পেটাতে পেটাতে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ের পাল সিএনজি ফিলিং স্টেশনের পাশে ফেলে দিয়ে মাইক্রোবাসটি ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেয়। এ সময় ভুক্তভোগীরা একটি বাসে উঠে ছিনতাইয়ের বিষয়টি বললে বাসটি মাইক্রোবাসের পিছু নেয়।
পরে মাইক্রোবাসটি ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক থেকে জয়পুরা দিয়ে একটি আঞ্চলিক সড়কে ঢুকলে ভুক্তভোগীরা বাস থেকে নেমে আশপাশের লোকজনকে সঙ্গে নিয়ে সোমভাগ ইউনিয়ন পরিষদের কাছে মাইক্রোবাসটি আটকাতে সক্ষম হন। এ সময় সাত-আটজন ছিনতাইকারীর মধ্যে পাঁচজনকে ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে দেন তারা।

ধামরাই থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নির্মল কুমার দাস বলেন, খবর পেয়ে পাঁচজন ছিনতাইকারীকে আহত অবস্থায় আটক করা হয়েছে। পরে তাদের ধামরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছি। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগীরা থানায় মামলা করছেন।  

news24bd.tv/হারুন