প্রথম দিনে সংসদে আবেগাপ্লুত ব্রিটেনের রাজা
প্রথম দিনে সংসদে আবেগাপ্লুত ব্রিটেনের রাজা

সংগৃহীত ছবি

প্রথম দিনে সংসদে আবেগাপ্লুত ব্রিটেনের রাজা

অনলাইন ডেস্ক

সোমবার ব্রিটেনের রাজা হিসেবে প্রথমবার ব্রিটিশ সংসদে ভাষণ দিয়েছেন রাজা তৃতীয় চার্লস। সদ্য মাকে হারিয়েছেন। ভেতরে শোকের প্রবাহ গভীর। তবুও তিনি রাজা।

এমন একটা শোকাবহ পরিবেশে ভাষণ দিতে গিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন তিনি।  

সাংবিধানিক শাসনের মূল্যবান নীতিগুলো বজায় রাখার ক্ষেত্রে তার মা প্রয়াত রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ নিঃস্বার্থভাবে যে দায়িত্ব পালনের উদাহরণ স্থাপন করে গিয়েছেন, সেই দৃষ্টান্তই অনুসরণ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ব্রিটেনের নতুন রাজা।  রানির মৃত্যুর প্রেক্ষিতে এদিন লন্ডনের ওয়েস্টিনস্টার হলে প্রায় ৯০০ জন ব্রিটিশ সংসদ সদস্য এবং লর্ডসরা শোকবার্তা জানান।  

সেখানেই রাজা তৃতীয় চার্লস জানান, তিনি এবার ইতিহাসের ওজন অনুভব করছেন।

কারণ, সংসদ ভবনের ভেতরে অবস্থিত ঘরগুলো তার মায়ের রাজত্বকালের নানা প্রতীকে পূর্ণ।  সে প্রসঙ্গে তিনি বলেন, প্রয়াত রানি তার দেশ এবং জনগণের সেবা করার এবং তাদের সাংবিধানিক সরকারের মূল্যবান নীতিগুলো বজায় রাখার জন্য অঙ্গীকার করেছিলেন খুব অল্প বয়সে এবং সেই ব্রত অতুলনীয় নিষ্ঠার সঙ্গে তিনি বরাবর পালন করেছেন।  

এ প্রসঙ্গে চার্লস মহাকবি শেক্সপিয়ারের প্রসঙ্গ তোলেন। তিনি বলেন, শেক্সপিয়ার যেমন আগের রানি এলিজাবেথ সম্পর্কে বলেছিলেন, তেমনই (তার মা) রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথও ছিলেন সব শাসকদের আদর্শস্বরূপ। ঈশ্বরের সহায়তা এবং আপনাদের পরামর্শে বিশ্বস্তভাবে সেই উদাহরণ অনুসরণের জন্য তিনি দৃঢ়ভাবে সংকল্পবদ্ধ থাকবেন বলেও তার ভাষণে উল্লেখ করেন।

এ দিন রাষ্ট্রীয় শোকপ্রকাশের সাংবিধানিক এই অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্যদের শোকবার্তাটি পড়ে শোনান হাউস অব কমন্সের স্পিকার স্যার লিন্ডসে হোয়েল। তিনি বলেন, ‌‘আমাদের শোক যতটা গভীর, আমরা জানি আপনার শোকের গভীরতা আরও অনেক বেশি। আমাদের প্রয়াত রানি, আপনার মায়ের সম্পর্কে প্রশংসাসূচক এমন কিছু আমরা বলতেই পারব না, যা আপনি আগে থেকেই জানেন না। ’

শোকবার্তাটি পাঠের পর সেই লিখিত বার্তাটি রাজা তৃতীয় চার্লসের হাতে তুলে দেওয়া হয়।  

সূত্র: বিবিসি

news24bd.tv/ইস্রাফিল