যুদ্ধে নিহত সেনাদের মরদেহ হস্তান্তরে প্রস্তুত আজারবাইজান
যুদ্ধে নিহত সেনাদের মরদেহ হস্তান্তরে প্রস্তুত আজারবাইজান

সংগৃহীত ছবি

যুদ্ধে নিহত সেনাদের মরদেহ হস্তান্তরে প্রস্তুত আজারবাইজান

অনলাইন ডেস্ক

নাগরনো-কারাবাখ নিয়ে প্রতিবেশী আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যেকার দুই দিনের যুদ্ধে উভয় দেশের ১৭৬ সেনা মারা গেছে। এর মধ্যে আজারবাইজানের ৭১ ও আর্মেনিয়ার ১০৫ জন। সীমান্ত যুদ্ধে অধিক সংখ্যক সেনা মারা যাওয়ার পর দুদেশই যুদ্ধবিরতির ঘোষণা দেয়। এবার যুদ্ধে মারা যাওয়া আর্মেনিয়ার ১০০ সেনা সদস্যের মরদেহ ফিরিয়ে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে আজারবাইজান।

যদিও আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী নিকোল পাশিনিয়ানের দাবি, আজারবাইজানের সঙ্গে সংঘর্ষে তাদের ১০৫ জন সেনা নিহত হয়েছে।  

বৃহস্পতিবার আজারবাইজান এ ঘোষণা দেয় বলে নিউজ এজেন্সি তুরনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে। দেশটির যুদ্ধবন্দি বিষয়ক সরকারি কমিশন বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে জানানো হয়, আন্তর্জাতিক মানবিক আইনের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে আর্মেনিয়ার মৃত ১০০ সেনা সদস্যের মরদেহ হস্তান্তর করতে প্রস্তুত আজারবাইজান।

দেশটির সরকারি কমিশনের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, আজারবাইজান রেডক্রসের আন্তর্জাতিক কমিটিকে এ বিষয়ে অবহিত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার থেকে আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার মধ্যে নতুনকরে সীমান্ত সংঘর্ষ শুরু হয়েছে। সংঘর্ষ শুরুর জন্য দুই দেশ পরস্পরকে দায়ী করছে।

আর্মেনিয়ার দাবি, আজারবাইজানের উসকানির কারণে এই সংঘর্ষ শুরু হয়। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে দাবি করে- জেরমুক, গরিস, কাপানসহ আজারবাইজান সীমান্তবর্তী কয়েকটি শহরে শত্রুপক্ষ মঙ্গলবার দিনের শুরুর দিকে গোলাবর্ষণ করেছে। এরপর জবাব দেওয়া হয়েছে।

তবে আজারবাইজানও নতুন করে সংঘর্ষ শুরুর জন্য আর্মেনিয়ার উসকানিকে দায়ী করেছে। সংঘর্ষে আজারবাইজানেরও বহু সেনা নিহত এবং ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

news24bd.tv/হারুন