ইউক্রেনের পুনরুদ্ধারকৃত শহরে মিলল গণকবর
ইউক্রেনের পুনরুদ্ধারকৃত শহরে মিলল গণকবর

সংগৃহীত ছবি

ইউক্রেনের পুনরুদ্ধারকৃত শহরে মিলল গণকবর

অনলাইন ডেস্ক

যুদ্ধ শুরুর পর ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় শহর ইজিয়াম দখলে নেয় রুশ বাহিনী। তবে শহরটি ফের দখল করেছে ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনী। শহরটি দখলের একদিন পরেই সেখানে একটি গণকবরের সন্ধান পেয়েছে তারা। ওই গণকবরে ৪৪০টি মরদেহ পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে ইউক্রেন কর্তৃপক্ষ।

খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

প্রতিবেদনে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যমটি জানায়, পুনরুদ্ধারকৃত ইজিয়াম শহরে একটি গণকবর পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে অঞ্চলটির পুলিশ প্রধান। ওই গণকবরে ৪৪০টি মরদেহ পাওয়া গেছে।

খারকিভ অঞ্চলের পুলিশ প্রধান সেরহি বলভিনভ স্কাই নিউজকে বলেন, ‘আমি বলতে পারি এটি ইজিয়ামের মতো বড় শহরের একটি খোলা সমাধিস্থল।

৪৪০টি মৃতদেহ এক জায়গায় কবর দেয়া হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, রুশ গোলাবর্ষণ ও উড়োজাহাজ হামলায় নিহতদের গণকবর দেয়া হয়েছে এখানে। ’

বৃহস্পতিবার রাতে গণকবর নিয়ে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি একটি ভিডিও বার্তা দিয়েছেন। যেখানে তিনি ইজিয়ামের এমতাবস্থাকে বুচা শহরের সঙ্গে তুলনা করেছেন।

জেলেনস্কি বলেন, ‘রাশিয়া সর্বত্র মৃত্যুকে পেছনে ফেলে যাচ্ছে এবং তাকে অবশ্যই দায়ী করা উচিত। ইতোমধ্যে ইজিয়ামে প্রয়োজনীয় প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। আগামীকালের মধ্যে সেখানকার সকল খবর পাওয়া যাবে। ’

গত ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে হামলা চালায় রাশিয়া। এরপরেই শুরু হয় যুদ্ধের। এর প্রাথমিক পর্যায়েই বুচায় রুশ বাহিনী যুদ্ধাপরাধের মতো ঘটনা ঘটিয়েছে বলে দাবি ইউক্রেন ও তাদের মিত্রদের।

সদ্য আবিষ্কৃত গণকবর নিয়ে এক টুইট বার্তায় ইউক্রেনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘রাশিয়ানদের কাছ থেকে পুনরুদ্ধারের পরই ইজিয়ামে গণকবর আবিষ্কৃত হয়েছে। বৃহত্তম সমাধিস্থলে ৪৪০টি অচিহ্নিত লাশ রয়েছে। ’

বৃহস্পতিবার ফরাসি সংবাদ সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসের একজন সাংবাদিক ইজিয়ামের বাইরের একটি জঙ্গলে গণকবরটি দেখেছিলেন। তিনি জানান, গাছের মাঝখানে সাধারণ কাঠের ক্রসসহ শত শত কবর ছিল সেখানে। অধিকাংশই কবর শুধুমাত্র সংখ্যা দিয়ে চিহ্নিত করা ছিল। এর মধ্যে একটি বৃহৎ কবরে মার্ক করা ছিল; যেখানে ১৭ ইউক্রেনীয় সৈন্যের মৃতদেহ রয়েছে।

গণকবরটিতে কোনো বিস্ফোরক আছে কি না তা জানতে মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা।  

ইজিয়ামের বাসিন্দা সার্জেই গোরেডকো বলেন, ‘রাশিয়ার উড়োজাহাজ হামলায় একটি অ্যাপার্টমেন্টের কয়েক ডজন প্রাপ্তবয়স্ক ও শিশু নিহত হয়েছিল। তাদের ওই গণকবরে সমাহিত করা হয়েছে। ’

ওই ধ্বংসস্তূপ থেকে নিজের হাতে কয়েকজনকে টেনে তুলেছেন বলে দাবি করেন ইজিয়ামের ওই বাসিন্দা।

চলতি সপ্তাহেই ইজিয়াম থেকে পালিয়েছে হাজার রুশ সৈন্য। তবে কত সৈন্য শহরটি ছেড়েছে তা নিয়ে কিছুই জানায়নি রুশ কর্তৃপক্ষ।

ইউক্রেনীয় কর্মকর্তাদের মতে, ইজিয়ামের কেন্দ্রস্থলে ব্যাপক বোমা হামলা করা হয়েছে। শহরটির ধ্বংসাবেশ দেখলেই সেখানকার যুদ্ধের পরিস্থিতি বোঝা যাবে। হামলায় সেখানে কমপক্ষে এক হাজার মানুষ মারা গেছে বলে দাবি তাদের।

news24bd.tv/মামুন