‘আওয়ামী লীগ জোটে জাতীয় পার্টি আর নেই, শান্তিপূর্ণ কারচুপির মেশিন হলো ইভিএম’
‘আওয়ামী লীগ জোটে জাতীয় পার্টি আর নেই, শান্তিপূর্ণ কারচুপির মেশিন হলো ইভিএম’

‘আওয়ামী লীগ জোটে জাতীয় পার্টি আর নেই, শান্তিপূর্ণ কারচুপির মেশিন হলো ইভিএম’

অনলাইন ডেস্ক

জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও সংসদে বিরোধীদলীয় উপনেতা জি এম কাদের বলেছেন, `ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটে জাতীয় পার্টি এখন আর নেই। কাজেই ভাঙ্গার কোন প্রশ্নও নেই। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টি অংশগ্রহণ করবে নাকি বর্জন করবে সে ব্যাপারে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি। '

আজ শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোটের সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যেএসব কথা বলেন তিনি।

জি এম কাদের বলেন, ‘আমরা বিরোধী দলে যেদিন থেকে কাজ করছি সেদিন থেকেই সরকারী দল বা আওয়ামী লীগের জোটে নেই। আমরা দেশ ও জনগণের স্বার্থে সত্যিকার কথা তুলে ধরতে চাই। আওয়ামী লীগ যদি ভালো কাজ করে তবে তাদের সঙ্গে আমরা ভবিষ্যতে থাকবো, যেমনটি ছিলাম। আর যদি তাদের ওপর আমরা আস্থা হারিয়ে ফেলি, জনগণ যদি তাদের ওপর আস্থা হারিয়ে ফেলে তবে তাদের সঙ্গে ভবিষ্যতে নাও থাকতে পারি।

ইলেকট্রনিক ভোটিং বা ইভিএম এ নির্বাচন সম্পর্কে জি এম কাদের বলেন, ‘আমরা বারংবার বলে আসছি, আমরা সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন চাই; কিন্তু ইভিএমের মাধ্যমে সেটা সম্ভব নয়। সেখানে হবে পাতানো নির্বাচন। সরকার যাকে চাইবেন তাকেই পাশ করিয়ে দিতে পারবেন। এটাকে আমি বলেছি শান্তিপূর্ণ কারচুপির মেশিন হলো ইভিএম মেশিন। তথাপি নির্বাচন বর্জনের মতো কোন সিদ্ধান্ত এখনো আমরা নেইনি। এটা অতি কঠিন সিদ্ধান্ত। দেশের জনগণকে বাঁচাতে হবে। এজন্য পরিবেশ বুঝে সামনে আমরা ব্যবস্থা নেবো। ‘

জি এম কাদের বলেন. জাতীয় পার্টি থেকে যারা শৃঙ্খলা ভঙ্গ করবে, দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে যারাই যাবেন তিনি যত বড় নেতাই হোন, যত প্রভাবশালীই হোন, যত বিত্তশালীই হোন, যত ধরণের ক্ষমতা তার থাকুক-আমরা সেটাকে তোয়াক্কা করবো না।  

news24bd.tv/কামরুল