‘ওরা আমাকে বাঁচতে দিলো না’ লিখে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা
‘ওরা আমাকে বাঁচতে দিলো না’ লিখে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা

সংগৃহীত ছবি

‘ওরা আমাকে বাঁচতে দিলো না’ লিখে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা

খুলনা প্রতিনিধি

খুলনার কয়রায় ‘সুইসাইড নোটে’ তিনজনকে অভিযুক্ত করে তনুশ্রী মাঝি (১৮) নামের এক কলেজ ছাত্রী আত্মহত্যা করেছেন। তিনি মহেশ্বরীপুর ইউনিয়নে হড্ডা গ্রামে দিপক মাঝির মেয়ে ও গড়ইখালী আবু মুছা মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী।

শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকালে নিজের ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে তনুশ্রী আত্মহত্যা করেন। কয়রা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এবিএমএস দোহা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

কলেজ ছাত্রীর বাবা দিপক মাঝি জানান, ‘বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে মেয়ের গলায় দড়ি দেয়ার কথা শুনে ঘরে জানালা ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করি। আমি মেয়ের পা উঁচু করে ধরি আর তার মা রশি কেটে দেয়। কিন্তু তাকে বাঁচাতে পারিনি। ’

আমাদী পুলিশ ফাঁড়ির কর্মকর্তা (আইসি) মো. মনিরুজ্জামান বলেন, ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে।

ঘটনাস্থল থেকে নোট লেখা একটি কাগজ পেয়েছি। নোটে লেখা ছিল, ‘আমি সঠিকভাবে বাঁচতে চাইছিলাম, কিন্তু পারলাম না। ওরা আমার পিছনে খুব ভালোমতো লাগিছে। আমি না মরা পর্যন্ত শান্তি পাবে না। শুভ, আলিফ, মিহির ওরা আমাকে বাঁচতে দিলো না। ’

মহেশ্বরীপুর ইউনিয়নের মেম্বর চায়না মন্ডল বলেন, পুলিশ সেখান থেকে একটা সুইসাইড নোট উদ্ধার করে নিয়ে গেছে। তনুশ্রী এতে কারা কারা তাকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করেছে তা’ লিখে গেছে।

news24bd.tv/আজিজ