কাতারের বিপক্ষে যুবাদের হার 
কাতারের বিপক্ষে যুবাদের হার 

সংগৃহীত ছবি

কাতারের বিপক্ষে যুবাদের হার 

অনলাইন ডেস্ক

ম্যাচের আগের দিন পদ্মা সেতুর উদাহরণ দিয়ে কাতারের বিপক্ষে বাংলাদেশ যুবাদের উজ্জীবিত করেছিল টিম ম্যানেজমেন্ট। কাজ হয়নি তাতে। এএফসি অ-২০ চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইয়ে কাতারের বিপক্ষে ৩-০ গোলে হেরেছে বাংলার যুবারা।

বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ কাতারকে রুখে দেওয়ার গল্প শুনিয়েছিল টিম ম্যানেজমেন্ট।

পদ্মা সেতুর মতো অসম্ভব কাজকে সম্ভব করা বাংলাদেশ চেয়েছিল কাতারকে হারাতে।  তবে শেষ পর্যন্ত ধোপে টিকল না সেটি। বাহারাইনে শেখ আলী বিন আল খলিফা স্টেডিয়ামে, আহমেদ আল রাউয়ির হ্যাটট্রিকে ৩-০ গোলে হারতে হয়েছে যুবাদের।

বাছাইপর্ব থেকে পরের রাউন্ডে খেলবে দশ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন ও পাঁচ রানারআপ।

এমন সমীকরণে কাতারকে রুখে দেওয়ার মিশনে মাঠে নামে বাংলাদেশ। পরের রাউন্ডে যেতে ১টি পয়েন্ট খুব প্রয়োজন ছিল বাংলাদেশের। এর আগে স্বাগতিক বাহরাইনের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ এক পয়েন্ট পেয়েছিল যুবারা। আসরে তিন ম্যাচ শেষে বাংলাদেশের পয়েন্ট চার। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচ আগামী ১৮ সেপ্টেম্বর। যেখানে নেপালের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

বাহরাইনের শেখ আলী বিন আল খলিফা স্টেডিয়ামে অনূর্ধ্ব-২০ এশিয়ান কাপের ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে বল দখলের লড়াইয়ে শুরু থেকে পিছিয়ে ছিলেন তানভীর-মইনুলরা।

ম্যাচের ২২ মিনিটে ডিফেন্ডার মোবারক হামজার বাড়ানো ক্রস থেকে বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে তা জালে পাঠায় ফরোয়ার্ড আহমেদ আল-রাউয়ি। উদযাপনের উপলক্ষ পায় কাতার। পিছিয়ে পরে ম্যাচে ফেরার চেষ্টা চালালেও গোলের জন্য যথেষ্ট ছিল না তা। শেষ পর্যন্ত গোল না পেলে ১-০ গোলে পিছিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।

দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নামার ১৫ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন আল-রাউয়ি। প্রথম প্রচেষ্টায় আল রাউয়ির শট ঠেকিয়ে দেয় গোলরক্ষক শান্ত। তবে নিয়ন্ত্রণে নিতে পারেনি। ফিরতি শটে দারুণ গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন রাউয়ি। ম্যাচে ফেরার সুযোগ ছিল বাংলাদেশেরও। ৭৫ মিনিটে মইনুল ইসলামের শট ক্রস বারের উপর দিয়ে গেলে হতাশ হতে হয় বাংলার যুবাদের।

এরপর একাধিক বার আক্রমণে গিয়েছে কাতার। তাদের রুখতে ইনজুরি সময়ে ভুল করে বাংলার ডিফেন্স। পেনাল্টি পায় কাতার। সেখান থেকে গোল করে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন রাউয়ি। সেই সাথে ৩-০ গোলের হার নিশ্চিত হয় যুবাদের।

news24bd.tv/আমিরুল