২৬ বছর পর স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড
২৬ বছর পর স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

প্রতীকী ছবি

২৬ বছর পর স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

মাদারীপুর প্রতিনিধি :

মাদারীপুরের শিবচরে স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করেছে একটি আদালত। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. ইসমাইল হোসেন এই রায় প্রদান করেন। এই মামলার অভিযুক্ত পলাতক রয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ১৯৯৬ সালের ৫ ডিসেম্বর মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার উমেদপুর ইউনিয়নের রাম রায়েরকান্দি গ্রামের গোপাল চন্দ্র পালের ছেলে গোবিন্দ চন্দ্র পাল তার স্ত্রী মীনালি রানী পালকে পারিবারিক কলহের জেরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে।

এই ঘটনার পরই গোবিন্দ চন্দ্র পাল পালিয়ে যায়। পরে শিবচর থানার এসআই আব্বাস উদ্দিন বাদী হয়ে ১৯৯৭ সালের ৯ জানুয়ারি তারিখে নিহত মিনালী রানীর স্বামী গোবিন্দ চন্দ্র পালকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। চাঞ্চল্যকর এই হত্যাকাণ্ডটি মাদারীপুর গোয়েন্দ পুলিশের এসআই নাজমুল হক ভূইয়া তদন্ত করে ওই বছরেরই ১ ফেব্রুয়ারি আসামি গোবিন্দ চন্দ্র পালকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়।

মাদারীপুরের আদালতের পিপি সিদ্দিকুর রহমান সিং বলেন, শিবচরের চাঞ্চল্যকর এই মামলাটি দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে আদালতে বিচারাধীন ছিল।

বিচরাধীন সময়ে মামলাটিতে আদালত  ৯ জন স্বাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে সোমবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. ইসমাইল হোসেন অভিযুক্ত গোবিন্দকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করেছেন। জরিমানা অনাদায়ে আরও ৩ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেছে। আমরা রাষ্ট্রপক্ষ এই রায়ে সন্তুষ্ট।
news24bd.tv/কামরুল