জোর করে দেড় হাজার ‘অপরাধী’কে যুদ্ধে পাঠাচ্ছে রুশ সংস্থা
জোর করে দেড় হাজার ‘অপরাধী’কে যুদ্ধে পাঠাচ্ছে রুশ সংস্থা

সংগৃহীত ছবি

জোর করে দেড় হাজার ‘অপরাধী’কে যুদ্ধে পাঠাচ্ছে রুশ সংস্থা

অনলাইন ডেস্ক

রাশিয়ান বেসরকারি সামরিক সংস্থা- ওয়াগনার গ্রুপ যুদ্ধে অংশ নিতে দেড় হাজার দোষী সাব্যস্ত অপরাধীকে ইউক্রেন পাঠাচ্ছে। তবে তাদের অনেকেই যুদ্ধে যোগ দিতে অস্বীকার করছে। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) একজন সিনিয়র মার্কিন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে এ তথ্য জানান।  

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ওই মার্কিন কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা তথ্য পেয়েছি, ওয়াগনার ইউক্রেনে তরুণ ও অনভিজ্ঞ যোদ্ধাদের পাঠিয়ে তীব্র ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে।

ক্রেমলিনের পক্ষে গোপন অভিযানের অভিযোগ করে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ওয়াগনার গ্রুপের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।  

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন জানান, ‌এই গোষ্ঠী রাশিয়ার প্রতিনিধিত্ব করে না। তবে তারা যদি দেশের আইন ভঙ্গ না করে তবে বিশ্বের যেকোনো জায়গায় কাজ করতে পারে।  

মার্কিন কর্মকর্তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সাম্প্রতিক ভিডিওগুলো দিকে ইঙ্গিত করেন।

যেখানে ইয়েভজেনি প্রিগোজিনকে দেখায়। ওই ভিডিও দেখে মার্কিন ট্রেজারি বিভাগ এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন বলেছে, ওয়াগনার গ্রুপ বন্দিদের যুদ্ধে পাঠানোর চেষ্টা করছে। ’ 

ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, প্রিগোজিন রাশিয়ান বন্দিদের পাশাপাশি তাজিক, বেলারুশিয়ান এবং আর্মেনিয়ানদেরও নিয়োগের চেষ্টা করছে। যদিও রয়টার্স ওই ভিডিওগুলো যাচাই করেনি।

২০১৪ সাল থেকে সিরিয়া এবং পূর্ব ইউক্রেনে যুদ্ধাপরাধের জন্য মানবাধিকার সংস্থা ও ইউক্রেন সরকার ওয়াগনার গ্রুপকে অভিযুক্ত করছে।

news24bd.tv/ইস্রাফিল