বন্ধুকে আটক রেখে স্কুলছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৩
বন্ধুকে আটক রেখে স্কুলছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৩

গ্রেপ্তার ৩

বন্ধুকে আটক রেখে স্কুলছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৩

সামছুজ্জামান শাহীন, খুলনা

খুলনার খালিশপুরে বন্ধুকে আটকে রেখে স্কুলছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ এ ঘটনায় ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। আজ মঙ্গলবার গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ৩ জনই ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, পাবলা সবুজ সংঘ মাঠ এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে মেজবাহ উদ্দীন, একই এলাকার সুজন মোল্লার ছেলে ইমন মোল্লা ও পাবলা বৈরাগীপাড়া এলাকার মহারাজ চৌকিদারের ছেলে শিমুল চৌকিদার।

ধর্ষণের শিকার হওয়া ওই কিশোরীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা যায়, সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ওই স্কুলছাত্রী তার বন্ধু মারুফের সঙ্গে ঘুরতে বের হয়। এসময় মারুফের সাথে তার ফুফাতো ভাই ও সমবয়সী মেজবাহ উদ্দিনের ফোনে কথা হয়।

মেজবাহ মেয়েটিকে নিয়ে দৌলতপুর পাবলা সবুজ সংঘ মাঠের দিকে ঘুরতে আসতে বলে।  

কথামতো একটি ইজিবাইকে মারুফ মেয়েটিকে নিয়ে সেখানে গেলে মেজবাহ উদ্দিন ও তার সঙ্গেও আরও দুই বন্ধু তাদেরকে খালিশপুর মদিনাবাগ এলাকার একটি বাড়িতে নিয়ে টাকা দাবি করে। কিন্তু তাদের কাছে টাকা না থাকায় মারুফকে আটকে রেখে মেজবাহ ও তার দুই বন্ধু মেয়েটিকে ধর্ষণ করে। পরে তাদের দু’জনকে মারধর ও ভয়ভীতি প্রদান করে তাড়িয়ে দেয়।

খালিশপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর বলেন, মেয়েটির বাবা থানায় অভিযোগ করলে আসামি তিন জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনজনই ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

news24bd.tv/রিমু