কুকুরের পেটে জন্ম নিল নেকড়ের ক্লোন
কুকুরের পেটে জন্ম নিল নেকড়ের ক্লোন

সংগৃহীত ছবি

কুকুরের পেটে জন্ম নিল নেকড়ের ক্লোন

অনলাইন ডেস্ক

প্রথমবারের মতো পরীক্ষাগারে মেরুপ্রদেশীয় নেকড়ের ক্লোন তৈরি করা গেল। চীনের সিনোজিন বায়োটেকনোলজি এই ক্লোন তৈরি করেছে। পৃথিবীর প্রথম ক্লোন করা মেরুপ্রদেশীয় নেকড়েটির নাম দেওয়া হয়েছে মায়া। মায়ার জন্ম হয়েছে সিনোজিনের বেজিংয়ের পরীক্ষাগারে।

সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমসের প্রতিবেদন অনুসারে, মায়ার জন্মের ১০০ দিন পেরিয়ে গিয়েছে এবং সে এখন সুস্থ আছে। জন্মের ১০০ দিন পর সিনোজিন বায়োটেকনোলজির তরফে মায়ার একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে। যা ইতোমধ্যে ভাইরাল হয়ে গেছে।

বন্য মেরুপ্রদেশীয় একটি স্ত্রী নেকড়ের ডিম্বাণু থেকে জন্ম হয়েছে মায়ার।

তবে তার ভ্রুণ রাখা হয়েছিল বিগল প্রজাতির একটি কুকুরের জরায়ুতে। ওই মেরুপ্রদেশীয় স্ত্রী নেকড়ে ডিম্বাণু থেকে ১৩০টিরও বেশি নতুন ভ্রূণ তৈরি করা হয়। পরে সাতটি বিগলের জরায়ুতে প্রতিস্থাপন করা হয় ৮০টিরও বেশি ভ্রূণ। এতগুলো ভ্রূণের মধ্যে এক মাত্র মায়াই সুস্থভাবে জন্মগ্রহণ করে।

সিনোজিনে কর্মরত বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, বন্য নেকড়ের প্রজাতি থেকে কালক্রমে কুকুরের উৎপত্তি হয়েছে। নেকড়ে এবং কুকুরের জিনে বেশ মিলও লক্ষ্য করা যায়। সে কারণেই কুকুরের জরায়ুতে ভ্রূণগুলো প্রতিস্থাপনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

মায়া এবং তার ‘মা’ ওই বিগল কুকুরটি একসঙ্গেই একটি ল্যাবের মধ্যে থাকে। তাকে চীনের হেইলংজিয়াং প্রদেশের হারবিন পোলারল্যান্ডে পৌঁছে দেওয়া হবে বলেও সিনোজিনের তরফে জানানো হয়েছে।

তথ্যসূত্র: ইন্ডিয়া টুডে 

news24bd.tv/সাব্বির 

সম্পর্কিত খবর