নোয়াখালীতে বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল সাংবাদিকের
নোয়াখালীতে বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল সাংবাদিকের

সংগৃহীত ছবি

নোয়াখালীতে বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল সাংবাদিকের

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলায় বাসের ধাক্কায় সাংবাদিক খোরশেদ আলম সিকদার (৫৫) নিহত হয়েছেন। তিনি সোনামুটি উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি ছিলেন। এ সময় খোরশেদকে ধাক্কা দিয়ে বাস ফেলে পালিয়ে যায় বাসের চালক ও হেলপার। পরে স্থানীয়দের সহায়তার বাসটি জব্দ করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

নিহত খোরশেদ উপজেলার ৯ং দেওটি ইউনিয়নের ৭নম্বর ওয়ার্ডের আনন্দিপুর গ্রামের হামিদ উল্লাহ পন্ডিত বাড়ির মৃত মো.ইদ্রিসের ছেলে। তিনি দৈনিক দিনকাল এর সোনাইমুড়ী উপজেলা প্রতিনিধি ও  সোনাইমুড়ী উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ছিলেন।

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭টা ১৫ মিনিটের দিকে উপজেলার সোনাইমুড়ী পৌরসভার ৯নম্বর ওয়ার্ডের নোয়াখালী টু কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের রামপুর এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে পেশাগত কাজে উপজেলার সোনাইমুড়ী বাজার থেকে পার্শ্ববর্তী চাষিরহাট বাজারে যাচ্ছিলেন সাংবাদিক শিকদার।

এসময় জেলা শহর মাইজদী থেকে ঢাকাগামী লাল সবুজ পরিবহনের একটি বাস সোনাইমুড়ী পৌরসভার রামপুর এলাকায় তার মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। এতে তার মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুরুত্বর জখম হয়। পরে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে গেলে চালক ও হেলপার বাস ফেলে পালিয়ে যায়। তাৎক্ষণিক স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে সোনাইমুড়ী পপুলার হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা নেওয়ার পথে রাত সাড়ে ১০টার দিকে কুমিল্লা গৌরিপুর বাজার এলাকায় তার মৃত্যু হয়।

সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুন আর রশীদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় বাসটি জব্দ করে থানায় নিয়ে আসা হয়। পরবর্তীতে এ ঘটনায় আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে। ’

news24bd.tv/আমিরুল

এই রকম আরও টপিক