বিদায় বলার আগে বার্সাকে যে ৯টি শর্ত দিয়েছিলেন মেসি
বিদায় বলার আগে বার্সাকে যে ৯টি শর্ত দিয়েছিলেন মেসি

সংগৃহীত ছবি

বিদায় বলার আগে বার্সাকে যে ৯টি শর্ত দিয়েছিলেন মেসি

অনলাইন ডেস্ক

সবশেষ মৌসুমেই জোর গুঞ্জন ছিল পিএসজিকে বিদায় বলে আবারও চিরচেনা ন্যু ক্যাম্পে ফিরবেন লিওনেল মেসি। তবে শেষ পর্যন্ত তা হয়ে ওঠেনি। তবে মেসির অপেক্ষায় চিরকাল থাকবে কাতালানবাসী। কেননা এই কাতালোনিয়ার প্রেমে পড়ের কাটিয়েছেন জীবনের দীর্ঘ সময়।

তবে ২০২০  সালে সেই সম্পর্ক ভাঙলে ভক্তদের মতো হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়েছিল মেসিরও।

তবে ক্লাব ছাড়ার আগে বার্সাকে ৯টি শর্ত দিয়েছিল মেসি। সে সব পূরণ করতে পারলে মেসিহীন হতে হতো না বার্সাকে। তবে মেসিকে রাখার জন্য চেষ্টা চালিয়েছিল ক্লাবটি।

সম্মত হয়েছিল ৬টি শর্ত মেনে নেওয়ার। তবে বাকি তিনটি পূরণ না হওয়ায় টলেনি মেসি ও তার পরিবারের মন।

এর পরের ঘটনা সবারই জানা। নতুন ঠিকানা পিএসজিতে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা।

তার আগে মেসির আইনজীবী জর্জ পেকোর্ট বার্তামেউ, গ্রাউ ও বার্সার আইন বিভাগের প্রধান র‌্যামন গোমেজ-পন্টির উদ্দেশে একটি ই–মেইল পাঠান। যেখানে চুক্তি নবায়নের ক্ষেত্রে ৯টি শর্তের কথা উল্লেখ করা হয়।

চুক্তির শর্তগুলো ছিল এরকম—

১. নতুন চুক্তি হবে ৩ বছরের।

২. কর্তিত বেতন সুদসহ ফেরত দিতে হবে বার্সাকে। অর্থ্যাৎ কোভিড-১৯-এর কারণে ২০২০-২১ মৌসুমে যেই ২০ শতাংশ বেতন কমানো হয়েছিল সব ফুটবলারের। তার পুরোটাই ফেরত দিতে হবে। এর মধ্যে ২০২১-২২ মৌসুমে ১০ শতাংশ, ২০২২-২৩ মৌসুমে বাকি ১০ শতাংশ। শুধু বেতনের কেটে নেওয়া অংশই নয়, এর সঙ্গে ৩ শতাংশ সুদও দিতে হবে।

৩. নিজের ও সুয়ারেজের পরিবারের জন্য ক্যাম্প ন্যুতে প্রাইভেট বক্সের ব্যবস্থা করতে হবে।

৪. ক্রিসমাসের ছুটিতে পুরো পরিবার নিয়ে আর্জেন্টিনায় যাতায়াতের জন্য প্রাইভেট বিমানের ব্যবস্থা করতে হবে।

৫. চুক্তি নবায়নের জন্য ১০ মিলিয়ন ইউরো বোনাস।

৬. রিলিজ ক্লজের ন্যূনতম পর্যায়ে নামিয়ে আনাতে হবে। ৭০ কোটি ইউরো থেকে ১০ হাজার ইউরোতে নামিয়ে আনতে হবে।

৭. বেতন বৃদ্ধি। স্পেন সরকার করের হার বাড়ানোয় বেতন বাবদ আয় কমে যাচ্ছিল মেসির। এ জন্য বেতন বৃদ্ধির দাবি করেন তিনি।

৮. ব্যক্তিগত সহকারীর চুক্তি নবায়ন। বার্সেলোনায় মেসির ব্যক্তিগত সহকারী ছিলেন পেপে কস্তা। তার বেতন দিত বার্সেলোনা।

৯. ভাইয়ের জন্য কমিশন: মেসির ভাই রদ্রিগো বার্সেলোনার সঙ্গে কাজ করতেন ফুটবলারদের এজেন্ট হিসেবে। ওই সময় আনসু ফাতির এজেন্ট ছিলেন তিনি। মেসির শর্ত ছিল, তাঁর ভাইয়ের সঙ্গেও চুক্তি নবায়ন করতে হবে।

এই শর্তগুলোর মধ্যে রিলিজ ক্লজ কমানো এবং চুক্তি নবায়ন বাবদ এক কোটি ইউরো বোনাসের শর্ত মানতে রাজি হননি বার্সা প্রেসিডেন্ট। বিপরীতে পিএসজি থেকে ভালো প্রস্তাব পাওয়ায় সেখানে নতুন ঠিকানা খুঁজে নেন আর্জেন্টাইন মহাতারকা।

news24bd.tv/আমিরুল

এই রকম আরও টপিক