দুর্বৃত্তের ছোড়া আগুনে স্ত্রীর মৃত্যু, দগ্ধ স্বামী হাসপাতালে
দুর্বৃত্তের ছোড়া আগুনে স্ত্রীর মৃত্যু, দগ্ধ স্বামী হাসপাতালে

সংগৃহীত ছবি

দুর্বৃত্তের ছোড়া আগুনে স্ত্রীর মৃত্যু, দগ্ধ স্বামী হাসপাতালে

নওগাঁ প্রতিনিধি

নওগাঁর পত্নীতলায় দুর্বৃত্তের আগুনে দম্পতির দগ্ধের ঘটনায় স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ওই গৃহবধূর মৃত্যু হয়। অন্যদিকে স্বামী রিপন মিয়া (২৪) একই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

নিহত হালিমা (১৯) ওরফে মিষ্টি জেলার মহাদেবপুর উপজেলার মহিনগর উত্তরপাড়া গ্রামের হাতেম আলীর মেয়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিনের মতো বুধবারও রাতের খাবার শেষে ঘুমাতে যান রিপন ও তার স্ত্রী হালিমা। এ সময় বাড়ির পেছন থেকে ঘরের জানালা দিয়ে দুর্বৃত্তরা পেট্রল মিশ্রিত আগুন ঘরের মধ্যে ছুড়ে মারে। আগুন মুহূর্তের মধ্যে ঘরে ছড়িয়ে পড়লে তাদের শরীরে আগুন লেগে যায়।

পরে স্বামী-স্ত্রীর চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে তাদের উদ্ধার করে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রাত সাড়ে ১২টার দিকে তাদের পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার দুপুরে হালিমার মৃত্যু হয়।
 
নিহত হালিমার বাবা হাতেম আলী বলেন, ‘কে বা কারা এমনটা করলো আমরা কিছুই জানি না। আমরা দোষীদের কঠিন শাস্তি চাই। ’

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. খালিদ সাইফুল্লাাহ বলেন, ‘অগ্নিদগ্ধ স্বামী-স্ত্রীর অবস্থা আশঙ্কাজনক ছিল। তাদের শরীরের ৭০ থেকে ৮০ ভাগ পুড়ে গেছে। ’

পত্নীতলা থানার ওসি শামসুল আলম শাহ বলেন, ‘রাতে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তবে থানায় এখনও কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। তবে ঘটনাটি কীভাবে ঘটলো বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। ’

news24bd.tv/মামুন