দুদিন ধরে কালো ডিম পাড়ছে পাতিহাঁসটি
দুদিন ধরে কালো ডিম পাড়ছে পাতিহাঁসটি

সংগৃহীত ছবি

দুদিন ধরে কালো ডিম পাড়ছে পাতিহাঁসটি

অনলাইন ডেস্ক

হরহামেশায় হাঁসের ডিম খাচ্ছি আমরা। হালকা সাদার মধ্যে কিছুটা সবুজ ও নীলচেভাব থাকে হাঁসের ডিমের মধ্যে। তবে ভোলার চরফ্যাশনে দেখা গেল ভিন্ন এক চিত্র। সেখানকার একটি হাঁস কালো ডিম পাড়ছে।

পরপর দুদিন কালো ডিম পেড়েছে পাতিহাঁসটি। এ নিয়ে গোটা এলাকাজুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। লোকজন এখন ওই ডিম দেখতে আসছেন।

ভোলার চরফ্যাশনের জিন্নাগড় ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবদুল মতিনের (৪৭) বাড়িতে এমনটি ঘটেছে।

বুধবার ও বৃহস্পতিবার টানা দুদিন কালো ডিম দিয়েছে হাঁসটি।

গণমাধ্যমে আবদুল মতিন জানান, বুধবার তাদের পালিত একটি পাতিহাঁস প্রথম একটি কালো ডিম পাড়ে। আজ বৃহস্পতিবারও আরেকটি কালো ডিম পেড়েছে ওই হাঁসটি। প্রথম দিন পাড়া ডিমটি ছিল কুচকুচে কালো। আজকের ডিমটির কোথাও কোথাও নীলচে ছোপ রয়েছে, তবে বেশির ভাগ অংশ কালো। এ ডিম তিনি একটি আলাদা খাঁচার মধ্যে রেখেছেন। লোকজন এসে দেখে যাচ্ছে।

তিনি জানান, তার স্ত্রী তাসলিমা বেগম ঘরে হাঁস-মুরগি পালন করে সংসারে বাড়তি আয় করেন। আট মাস আগে প্রতিবেশীর কাছ থেকে ২১টি ছোট হাঁসের বাচ্চা কিনে আনেন তিনি। কাক, চিল, শিয়ালে নেওয়ার পর এবং রোগে ভুগে মারা যাওয়ার পর ১১টি হাঁস টিকে আছে।

তাসলিমা বেগম জানান, তার পালিত ১১টি দেশি হাঁসের মধ্যে ৮ মাস বয়সের একটি পাতিহাঁস গতকাল প্রথম ডিম পাড়ে। তবে ডিমের রং একেবারে কালো দেখে প্রথমে তিনি ভয় পেয়ে যান। পরে ডিমটি বাড়ির অন্যদের দেখান। মুহূর্তের মধ্যে কালো ডিমের খবরটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। দেশি হাঁসের কালো ডিম দেখতে বাড়িতে মানুষ ভিড় জমায়। প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ও সাংবাদিক আসেন। আজকেও কালো ডিম পেড়েছে। তবে আগের দিনের থেকে একটু কম কালচে।

এ বিষয়ে ভোলা জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ইন্দ্রজিৎ কুমার মণ্ডল বলেন, ‘দেশীয় পাতিহাঁস কালো ডিম পেড়েছে এই ঘটনা বাংলাদেশে এই প্রথম। জিং ডিং জাতের হাঁস হালকা নীল রঙের ডিম দেয়, পাতিহাঁস কালো ডিম পেড়েছে কখনো শুনিনি এবং দেখিনি। ভারতীয় ব্রিডের কাদারনাথ কালো মাসি জাতের মুরগি রয়েছে যারা কালো ডিম পারে এবং যার গোশতও কালো।  

‘জানামতে পাতিহাঁস কালো ডিম পাড়তে পারে না। ওই হাঁসের জরায়ু বা শারীরিক কোনো সমস্যার কারণে কালো ডিম পাড়তে পারে। ’

চরফ্যাশন উপজেলা প্রাণী সম্পদ বিভাগের উপ সহকারী প্রাণী সম্পদ স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মো. ইব্রাহিম বলেন, ‘এ ঘটনা আরও কয়েকদিন পর্যবেক্ষণ করে দেখতে হবে কি কারণে এই হাঁস কালো ডিম পেড়েছে। যদি দেখা যায় এই হাঁসটি ধারাবাহিকভাবে কালো ডিম পাড়ছে তাহলে প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের গবেষণাগারে হাঁস ও ডিম পাঠানো হলে সঠিক কারণ জানা যাবে। তবে এ ধরণের ঘটনা এ দেশে প্রথম। ’

news24bd.tv/মামুন