মুন্সিগঞ্জে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষে আহত শাওন মারা গেছেন
মুন্সিগঞ্জে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষে আহত শাওন মারা গেছেন

সংগৃহীত ছবি

মুন্সিগঞ্জে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষে আহত শাওন মারা গেছেন

অনলাইন ডেস্ক

মুন্সিগঞ্জের মুক্তারপুরে বুধবার পুলিশের সঙ্গে বিএনপির নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনায় আহত শহীদুল ইসলাম শাওন (২৭) মারা গেছেন। আজ বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৯টার দিকে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় এই যুবদলকর্মীর মৃত্যু হয়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া শাওনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।

শাওনকে গতকাল মুন্সিগঞ্জ থেকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছিল। তার মাথায় আঘাত ছিল। গতকাল সদর উপজেলা বিএনপি’র সমাবেশ ঘিরে পুলিশের সঙ্গে দলীয় নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ হয়। এতে পুলিশসহ অর্ধ শতাধিক নেতাকর্মী আহত হন।

আহতদের মধ্যে শাওনসহ ৩ জনকে ঢাকা আনা হয়েছিল।

শাওনের বাড়ি মুন্সিগঞ্জ সদরের মুরমা গ্রামে। বাবার নাম ছোয়াব আলী ভুইয়া। শাওন পেশায় মিশুক চালক এবং মীরকাদিম পৌরসভার যুবদলের কর্মী ছিলেন। দুই ভাই, এক বোনের মধ্যে শাওন ছিল বড়। স্ত্রী সাদিয়া আক্তার ও এক বছরের ছেলে আবরারকে নিয়ে শাওন মুন্সিগঞ্জেই থাকতেন। পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, দুই বছর আগে শাওন বিয়ে করেন।

news24bd.tv/সাব্বির