ইতালির প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী হলেন মেলোনি
ইতালির প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী হলেন মেলোনি

সংগৃহীত ছবি

ইতালির প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী হলেন মেলোনি

অনলাইন ডেস্ক

ইতালির পার্লামেন্ট নির্বাচনে জয় পেয়েছেন কট্টর ডানপন্থী নেতা জর্জিয়া মেলোনি। এ জয়ের মধ্য দিয়ে দেশটির ইতিহাসে প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন ৪৫ বছর বয়সী এই নারী। একই সাথে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ডানপন্থী জোট হিসেবে প্রথমবারের মতো ইতালির ক্ষমতা পেতে যাচ্ছে মেলোনির দল ব্রাদার্স অব ইতালি।

জরিপে দেখা গেছে মেলোনির ব্রাদার্স অব ইতালি ভোট পেয়েছেন ২৬ শতাংশ।

এর আগে গত ২০১৮ সালের নির্বাচনে মাত্র ৪ শতাংশ ভোট পেয়েছিল তার দল। ধারণা করা হচ্ছে ইতালিতে চলমান অর্থনৈতিক পরিস্থিতিসহ নানা সমস্যার কারণে দেশটির নাগরিকরা বেছে নিয়েছেন তাকে।

মেলোনির প্রতিপক্ষ হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেওয়া মাত্তেও সালভিনির লিগ ৯ শতাংশ ভোট পেয়েছে। সবশেষ নির্বাচনে দলটির ভোট ছিল ১৯ শতাংশের মতো।

অপর রাজনৈতিক দল সিলভিও বেরলুসকোনির ফোরজা ইতালিয়া পেয়েছে ৮ শতাংশ ভোট। এতে শরিক হিসেবে জোটে অবস্থান পোক্ত হয়েছে ব্রাদার্স অব ইতালির। অন্যদিকে ক্ষমতা থেকে সদ্য বিদায়ী মধ্য–বাম ডেমোক্রেটিক পার্টি পেয়েছে প্রায় ১৯ শতাংশ ভোট। নিরপেক্ষ ফাইভ স্টার মুভমেন্ট পেয়েছে ১৬ শতাংশ ভোট।

এর আগে গতকাল ভোর পাঁচটায় শুরু হয় ইতালির পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভোট গ্রহণ। যা চলে রাত ১১টা পর্যন্ত। নির্বাচনে কট্টর ডানপন্থীরা জয় পাবে বলে আগেই ধারণা করা হচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত সেটিই সত্যি হয়েছে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর প্রথমবারের মতো ইতালির কট্টর ডানপন্থী সরকার গঠন করবেন মেলোনি।

এরইমধ্যে ভোটে বিজয় ঘোষণা করেছেন মেলোনি। পরবর্তী সরকারের নেতৃত্ব দাবি করে সমস্ত ইতালীয়দের জন্য কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন ৪৫ বছর বয়সী এই নারী।

তিনি বলেন, ‘ইতালীয়রা ব্রাদার্স অফ ইতালির নেতৃত্বে একটি কেন্দ্র-ডান সরকারের পক্ষে একটি স্পষ্ট বার্তা পাঠিয়েছেন। রাতটি ইতালির ব্রাদার্সের জন্য একটি গর্বের। বর্তমান পরিস্থিতি কঠিন, সবার কাছ থেকে সহায়তা প্রয়োজন। ’

মেলোনি আরও বলেন, ‘যদি আমাদের এই জাতিকে শাসন করার জন্য বলা হয়, তাহলে আমরা সকল ইতালীয়দের জন্য তা করব। জনগণকে বিভক্ত না করে তাদের  একত্রিত করে পরিস্থিতি উন্নত করব। আমরা আপনাদের বিশ্বাসের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করব না। ’

ইতালির প্রধান কেন্দ্র-বাম দল, ডেমোক্রেটিক পার্টি (পিডি) পরাজয় স্বীকার নিয়েছেন। সোমবার সকালে পরাজয় স্বীকার করে পরবর্তী সংসদে বৃহত্তম বিরোধী শক্তি হওয়ার কথা জানান বামপন্থীদের আইন বিষয়ক উপদেষ্টা ডেবোরা সেরাচিয়ানি।

তিনি বলেন, ‘এটি দেশের জন্য একটি দুঃখজনক সন্ধ্যা। সংসদে ডানপন্থীদের সংখ্যাগরিষ্ঠ আছে, কিন্তু দেশে নেই। ’

বিভিন্ন জরিপের অস্থায়ী ফলাফলগুলি বলছে, জর্জিয়া মেলোনির ব্রাদার্স অফ ইতালি পার্টির নেতৃত্বে একটি ডানপন্থী জোট প্রায় ৪৩% ভোট জিতেছে। এবং পার্লামেন্টে স্পষ্ট সংখ্যাগরিষ্ঠতার পথে রয়েছেন।

news24bd.tv/আমিরুল