প্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার, দেবর আটক
প্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার, দেবর আটক

প্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার, দেবর আটক

মাদারীপুর প্রতিনিধি :

মাদারীপুরের কালকিনিতে সোমবার দুপুরে আসমা আক্তার নামে এক সৌদি প্রবাসীর স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এই ঘটনায় সম্পৃক্ততার অভিযোগে দেবর নাজমুল সরদারকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুরে উপজেলার গোপালপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।  

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কয়েক বছর আগে বরিশালের খাঞ্জাপুর ইউনিয়নের হালিম সরদারের সঙ্গে বিয়ে হয় আসমার।

 এরপর হালিম সরদার উন্নত জীবনের আসায় সৌদি আরব চলে যান। হালিম সরদার প্রবাসে থাকাকালীন সময় খাঞ্জাপুর ইউনিয়নের একই বাড়ির এসকেন সরদারের ছেলে নাজমুল সরদার নামে চাচাতো দেবরের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়।  

সম্প্রতি গৃহবধূ আসমা আক্তারের স্বামী ছুটিতে দেশে এসে মাস কয়েক বাড়িতে থাকেন। গত ১২দিন আগে আবার সৌদি চলে যায় আসমার স্বামী হালিম।

হালিম সৌদি আরব চলে যাবার পর নাজমুল সরদারের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক আবার চলতে থাকে। সোমবার দুপুরে আসমার সঙ্গে ভিডিও কলে কথা কাটাকাটি হয় নাজমুলের। দুপুরে কালকিনি উপজেলার গোপালপুরের ভাড়া বাসায় আসমা আক্তার মারা গেছে এমন দাবি করে আসমার ঘরে ঢুকে নাজমুল সরদার।  

পরে স্থানীয়রা কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তৃব্যরত চিকিৎসক আসমাকে মৃত ঘোষণা করে। স্থানীয়রা নাজমুলকে আটকে রেখে থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ নাজমুলকে আটক করে। এই ঘটনার প্রকৃত কারণ উদঘাটনে নিহত আসমার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর সদর হাসপাতালের পাঠানো হয়।  

নিহতর বাবা নাসিম সরদার জানান, আমার মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে। তিনি থানায় মামলা করবেন বলে জানান।  

কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. শেখর কুমার দেবনাথ বলেন, লাশের গলায় দাগের আলামত আছে।  

কালকিনি থানার ওসি শামিম হাসান জানান, খবর পেয়ে পলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। নিহতের ঘারে দাগ রয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একজনকে আটক করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্টে আসল ঘটনা বেরিয়ে আসবে।  

news24bd.tv/কামরুল