নিজেদের ভুল স্বীকার করল রাশিয়া
নিজেদের ভুল স্বীকার করল রাশিয়া

সংগৃহীত ছবি

নিজেদের ভুল স্বীকার করল রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক

ইউক্রেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য রিজার্ভ সৈন্য সমাবেশের ডাক দিয়ে একটি ডিক্রিতে স্বাক্ষর করেছিলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এরপর থেকেই দেশটিতে বিক্ষোভ শুরু হয়। পালাতে থাকে দেশটির যুদ্ধক্ষম পুরুষেরা। অবশেষে রিজার্ভ সৈন্যের ডাকটি ভুল ছিল বলে স্বীকার করেছে রাশিয়া।

খবর বিবিসির।

প্রতিবেদনে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যমটি জানায়, ইউক্রেনে যুদ্ধের জন্য রিজার্ভ সেনাদের ডাকটি ভুল ছিল বলে স্বীকার করেছে ক্রেমলিন। ক্রমবর্ধমান জনগণের বিরোধিতার মধ্যে নিজেদের ভুলটি স্বীকার করেছে তারা।

পুতিনের মুখপাত্র বলেন, ‘ডিক্রি লঙ্ঘন করার অনেক খবর পাওয়া যাচ্ছে।

তবে সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে। ’

বিভিন্ন সূত্রে জানা যাচ্ছে, সামরিক বাহিনীতে কাজ করার অভিজ্ঞতা নেই এমনদেরকেও রিজার্ভ সৈন্যের জন্য ডাকা হচ্ছে। এমনকি বৃদ্ধ ও প্রতিবন্ধীদেরও ডাকা হচ্ছে।

এ দিকে গত সপ্তাহে পুতিনের জারি করা ডিগ্রি ঘিরে দেশটিতে ব্যাপক বিক্ষোভ চলছে।

গত ২১ সেপ্টেম্বর পুতিন আংশিক সেনা সমাবেশেন ঘোষণা দেন। এরপর প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু বলেছিলেন, ৩ লাখ রিজার্ভ সৈন্যকে ডাকা হবে।

তবে রুশ বিরোধী সংবাদ মাধ্যমগুলোতে বলা হচ্ছে, ১০ লাখের বেশি সেনা সমাবেশ ঘটাতে পারে রাশিয়া। পুতিনের ডিক্রিতে যে সেনা সংখ্যার কথা বলা হয়েছে তার চেয়ে অনেক বেশি সেনা ডাকা হবে। কিন্তু তা গোপন করে রাখা হয়েছে।

ইউক্রেন ও পশ্চিমাদের বেশ কয়েকজন সামরিক বিশেষজ্ঞ বলছেন, রাশিয়ার রিজার্ভ সৈন্য ডাকার অর্থ হচ্ছে ইউক্রেনের যুদ্ধক্ষেত্রে রুশ সেনারা ব্যর্থ হচ্ছে।

রিজার্ভ সৈন্যর ডাকার পর থেকে বিক্ষোভ চলছে মস্কোসহ বিভিন্ন শহরে। এসব বিক্ষোভ থেকে দুই হাজারের বেশি রাশিয়ানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সোমবার (২৬ আগস্ট) এক সংবাদ সম্মেলনে পুতিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ তাদের স্বীকার ভুল করেছেন। তিনি বলেন, ‘কিছু অঞ্চলের গভর্নররা পরিস্থিতি সঠিক করতে সক্রিয়ভাবে কাজ করছেন। ’দেশে সামরিক আইন জারি ও সীমান্ত বন্ধের বিষয়ে অবগত নন বলে জানান পেসকভ।

সেনাবাহিনীতে যোগ দেয়ার ভয়ে যুদ্ধক্ষম পুরুষরা যেন পালিয়ে যেতে না পারে সেজন্য সীমান্ত বন্ধ করা হচ্ছে বলে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে বলা হচ্ছে।

এ দিকে পুতিনের ডিক্রিতে স্বাক্ষর করার পর থেকেই অনেক রুশ যুবক দেশ ছাড়ছেন। জর্জিয়া সীমান্তে গাড়ির দীর্ঘ সারি দেখা গেছে।

গত সপ্তাহে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন পুতিন। ওই সময় আংশিক সেনা সমাবেশে তিন লাখ রিজার্ভ সৈন্যকে ডাকা হবে বলে তিনি জানান। তবে কত সৈন্যকে ডাকা হবে ভাষণে নিশ্চিত করেননি পুতিন।

তবে পুতিনের পর প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু বলেন, তিন লাখ রিজার্ভ সৈন্যকে ডাকা হবে- সামরিক অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা রয়েছে এমনদের তালিকা করা হচ্ছে।

news24bd.tv/মামুন