মুচলেকা দিয়ে আগাম জামিন পেলেন আল-আমিন
মুচলেকা দিয়ে আগাম জামিন পেলেন আল-আমিন

সংগৃহীত ছবি

মুচলেকা দিয়ে আগাম জামিন পেলেন আল-আমিন

অনলাইন ডেস্ক

স্ত্রীর ইসরাত জাহানের করা নারী নির্যাতনের মামলায় আগাম জামিন পেয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের পেসার আল-আমিন হোসেন। ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শফি উদ্দিনের আদালতে মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) আত্মসমর্পণ করে আইনজীবীর মাধ্যমে জামিনের আবেদন করেন আল-আমিন। শুনানি শেষে পাঁচ হাজার টাকা মুচলেকায় ৬ই অক্টোবর পর্যন্ত তার জামিন মঞ্জুর করেন বিজ্ঞ বিচারক।

এর আগে গত ৭ সেপ্টেম্বর একসঙ্গে বসবাসের অধিকার, মাসিক ভরণ-পোষণ ও সন্তানদের খরচ দাবি করে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শফি উদ্দিনের আদালতে মামলা করেন ক্রিকেটার আল-আমিনের স্ত্রী ইসরাত জাহান।

স্ত্রীর করা মামলাটি আমলে নিয়ে আল-আমিনকে হাজির হতে সমন জারি করেন আদালত।

মামলায় বলা হয়, গত ২০১২ সালের ২৬শে ডিসেম্বর ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক ইসরাত জাহান ও আল-আমিন বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। তাদের দুটি পুত্রসন্তান রয়েছে। বড় ছেলে মিরপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজে ইংরেজি ভার্সনে কেজিতে পড়াশোনা করছে।

বেশ কিছুদিন ধরে আল-আমিন স্ত্রী ও সন্তানদের ভরণ-পোষণ দেন না এবং খোঁজও না নিয়ে এড়িয়ে চলছেন। যোগাযোগও করেন না।

গত ২৫শে আগস্ট রাত সাড়ে ১০টার দিকে আল-আমিন বাসায় এসে স্ত্রীর কাছে যৌতুকের জন্য ২০ লাখ টাকা দাবি করেন। ইসরাত জাহান টাকা দিতে অস্বীকার করলে আল-আমিন তাকে এলোপাথাড়ি কিল ঘুসিসহ লাথি মেরে শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করেন। সংসার করবেন না বলে জানান। ইসরাত জাহান ৯৯৯-এ টেলিফোন করে সাহায্য চাইলে পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করেন। পরে সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নেন ইসরাত জাহান। এ ঘটনায় পহেলা সেপ্টেম্বর মিরপুর মডেল থানায় মামলাও হয়।

মামলার বাদী ইসরাত তার দুই সন্তানসহ বসতবাড়িতে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করার অধিকারসহ মাসিক ভরণ-পোষণ দাবি করে মামলাটি করেন। এছাড়াও জীবনধারণের জন্য ৪০ হাজার, দুই সন্তানের ভরণ-পোষণ ও ইংলিশ মিডিয়ামে লেখাপড়া-বাবদ মাসে ৬০ হাজার টাকা মামলায় দাবি করেছেন আল-আমিনের কাছে।

news24bd.tv/আমিরুল