ওষুধ কিংবা ইনজেকশন যা লাগে দিন, আমি খেলতে চাই: সূর্যকুমার
ওষুধ কিংবা ইনজেকশন যা লাগে দিন, আমি খেলতে চাই: সূর্যকুমার

সংগৃহীত ছবি

ওষুধ কিংবা ইনজেকশন যা লাগে দিন, আমি খেলতে চাই: সূর্যকুমার

অনলাইন ডেস্ক

সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে সাম্প্রতিক সময়ে ভারতীয়দের মধ্যে অন্যতম নির্ভরযোগ্য ব্যাটার সূর্যকুমার যাদব। যেমন ধারাবাহিকতার ছাপ রাখছেন, তেমনই সামর্থ্যের প্রমাণ দিচ্ছেন এ ব্যাটার। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ নির্ধারণী শেষ ম্যাচে ভারতের জয়ের নায়ক তিনি। তবে এ ম্যাচে খেলাই নিশ্চিত ছিল না তার।

অসুস্থতার কারণে তাকে মাঠে নামাতে সায় দেয়নি দলের ফিজিও। এর পর মাঠে নেমে ম্যাচের সবটুকু আলো নিজের দিকে টেনে নিয়েছেন এ ব্যাটার।

অজিদের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ১৮৬ রান। রান তাড়ায় শুরুতেই দ্রুত দুই উইকেট খুইয়ে চাপে পড়ে ভারত।

তবে সেখান থেকে ভারতকে টেনে তুলে দলকে জিতিয়েছেন সূর্যকুমার। বিরাট কোহলির সাথে ১০৪ রানের জুটিতে ১৯১ স্ট্রাইক রেটে ৩৬ বলে ৬৯ রান করেন সূর্যকুমার।

তবে এর পেছনের গল্পটা কারও জানা ছিল না। ম্যাচে সবাই তার চার ছক্কার বৃষ্টিতে ভিজলেও নিজের ব্যথাটা কাউকে বুঝতে দেননি তিনি। ম্যাচের আগের দিন রাতে পেটব্যথা ও জ্বরে ভুগা সূর্যকুমার ঝুঁকি নিয়েই মাঠে নেমেছিলেন এদিন। আর বিজয়ের গল্প লিখেই মাঠ ছেড়েছেন তিনি।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের পর বিসিসিআই টিভিতে অক্ষর প্যাটেলের সঙ্গে আলাপের সময় নিজের অসুস্থতার কথা জানান সূর্যকুমার। এ সময় তিনি বলেন, ‘আবহাওয়া পরিবর্তন এবং ভ্রমণের কারণে আমার পেটে ব্যথা হচ্ছিল এবং জ্বরেও আক্রান্ত হই। আমি জানতাম যে এটা সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচ। তখন আমি চিকিৎসক এবং ফিজিওকে বললাম, যদি এটা বিশ্বকাপ ফাইনাল হতো, তাহলে আমি কী করতাম? আমি এভাবে অসুস্থ হয়ে থাকতে পারি না। যা করতে হয় করুন। ওষুধ দিন কিংবা ইনজেকশন, আমাকে ম্যাচের জন্য তৈরি করে দিন। ’

ম্যাচসেরা সূর্যকুমার মাঠের নামার অনুভূতির কথাও জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আপনি যখন দেশের জার্সি পরে মাঠে প্রবেশ করবেন, সেই আবেগই অন্য রকম। তখন কোনো ব্যথায় ব্যথা মনে হবে না। ’

news24bd.tv/আমিরুল