বাড়ি ফেরার পথে ধর্ষণের শিকার তরুণী, আসামি গ্রেপ্তার 
বাড়ি ফেরার পথে ধর্ষণের শিকার তরুণী, আসামি গ্রেপ্তার 

প্রতীকী ছবি

বাড়ি ফেরার পথে ধর্ষণের শিকার তরুণী, আসামি গ্রেপ্তার 

অনলাইন ডেস্ক

ভোলার চরফ্যাশন উপজেলায় ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেলে আত্মীয়ের বাড়ি থেকে ফেরার পথে এক তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। সোমবার (২৬ সেপ্টেম্ব) সন্ধ্যায় চরমাদ্রাজ ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের স্লুইলিজ গেইট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর মা বাাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন।

গ্রেপ্তার ব্যক্তি হলেন উপজেলার চরমাদ্রাজ ইউনিয়নের পুর্ব মাদ্রাজ গ্রামের হারুন চাকিদারের ছেলে আলামিন। তিনি মোটরসাইকেলে ভাড়ায় যাত্রী বহন করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, সোমবার সন্ধ্যায় ভুক্তভোগী তরুণী ও তার মামাতো বোন ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেলে আত্মীয়ের বাড়ি থেকে মোহাম্মদপুর গ্রামে বাড়িতে ফিরছিলেন। ফিরতে সন্ধ্যা হয়ে গেলে মোটরসাইকেলচালক আলামিন তাদের কু-প্রস্তাব দেন।

পরে সন্ধ্যা ৭টায় মোটরসাইকেলটি স্লুইলিজ গেইট পৌঁছলে দুই তরুণীকে মোটরসাইকেল থেকে নামিয়ে আলামিন টানা হেঁচড়া করতে থাকেন। এ সময় ভয়ে আতঙ্কিত হয়ে ভুক্তভোগী তরুণী ও তার মামাতো বোন দুদিকে দৌঁড় দেন। পরে অভিযুক্ত আলামিন ভুক্তভোগীকে কেওড়া বনে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে তার সঙ্গে থাকা মামাতো বোন বিষয়টি স্থানীয়দের জানান।

এদিকে স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে ছুটে এলে অভিযুক্ত আলামিন পালিয়ে যান। পরে ওই তরুণী বাড়ি ফিরে ঘটনাটি তার মা ও পরিবারের সদস্যদের জানান।

এ বিষয়ে চরফ্যাশন থানার ওসি মুহা. মোরাদ হোসেন জানান, এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর মা মামলা দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত আলামিনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। ভুক্তভোগী তরুণীকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য ভোলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

news24bd.tv/হারুন