ইউক্রেনকে আলোচনায় ফিরে আসার আহ্বান পুতিনের
ইউক্রেনকে আলোচনায় ফিরে আসার আহ্বান পুতিনের

সংগৃহীত ছবি

ইউক্রেনকে আলোচনায় ফিরে আসার আহ্বান পুতিনের

অনলাইন ডেস্ক

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনের দখলকৃত চারটি ভূখণ্ডকে রাশিয়ায় যুক্ত করার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছেন। শুক্রবার ক্রেমলিনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে পুতিন এই ঘোষণা দেন। পুতিনের ঘোষণার ফলে ইউক্রেনের দখলকৃত খেরসন, জাপোরিজ্জিয়া, ডনেস্ক ও লুহানস্ক অঞ্চলকে নিজেদের ভূখণ্ড বলে দাবি করবে রাশিয়া।   খবর রাশিয়া টুডের।

 

এদিকে ,ইউক্রেনকে অবিলম্বে যুদ্ধ বন্ধ করে শান্তি আলোচনায় ফিরে আসার আহ্বানও জানান পুতিন। তবে সেইসঙ্গে তিনি বলেন, লুহানস্ক, দোনেৎস্ক, ঝাপোরিজ্জিয়া ও খেরসনের জনগণ নিজেদের ইচ্ছায় রাশিয়ার অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন এবং তাদের আকাঙ্ক্ষার প্রতি রাশিয়া অত্যন্ত শ্রদ্ধাশীল। সুতরাং শান্তি আলোচনায় এসব অঞ্চলকে নিজেদের বলে দাবি করার সুযোগ আর ইউক্রেনের নেই। এই চার প্রদেশ এখন থেকে রাশিয়ার অংশ।

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, আমরা কিয়েভ সরকারকে সমস্ত শত্রুতা বন্ধ করার জন্য, ২০১৪ সাল থেকে শুরু হওয়া যুদ্ধ বন্ধ করার এবং আলোচনার টেবিলে ফিরে আসার আহ্বান জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, মস্কো যে অঞ্চলগুলি অংশ হতে চায় তাদের সাথে "বিশ্বাসঘাতকতা" করবে না। পুতিন কিয়েভকে চারটি অঞ্চলের জনগণের করা ‌‘মুক্ত পছন্দ’কে  সম্মানের সাথে গ্রহণেরও  আহ্বান জানিয়েছেন। এটাই শান্তির একমাত্র পথ বলে জানান পুতিন।

পুতিন বলেন, জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য সবকিছু করবে তার সরকার।

সম্প্রতি ইউক্রেনে দখলকৃত চারটি এলাকায় কথিত গণভোট আয়োজন করেছে রাশিয়া। এই চারটি এলাকা ইউক্রেনের ১৫ শতাংশ ভূখণ্ড। নিরপেক্ষ পর্যবেক্ষকের অনুপস্থিতে আয়োজিত গণভোটে ৯৯ শতাংশ মানুষ রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হওয়ার পক্ষে রায় দিয়েছেন বলে দাবি মস্কোর। ইউক্রেন, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় দেশগুলো এই গণভোটকে মস্কোর ‘সাজানো’ এবং অবৈধ বলে দাবি করেছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে রুশ অধিকৃত ইউক্রেনের খেরসন এবং জাপোরিজ্জিয়া অঞ্চলকে ‘স্বাধীনতার’ স্বীকৃতি দিয়ে ডিক্রি জারি করেছেন পুতিন। আর ফেব্রুয়ারিতে ডনেস্ক ও লুহানস্ক অঞ্চলকে স্বাধীন হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছিলেন তিনি।

news24bd.tv/আলী