পরীক্ষা শুরুর পরই প্রশ্নপত্র যায় কেন্দ্রের বাইরে, চলে নকলের মহোৎসব
পরীক্ষা শুরুর পরই প্রশ্নপত্র যায় কেন্দ্রের বাইরে, চলে নকলের মহোৎসব

গাইবান্ধা সুরুজ্জাহান উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র

পরীক্ষা শুরুর পরই প্রশ্নপত্র যায় কেন্দ্রের বাইরে, চলে নকলের মহোৎসব

নাঈম আল জিকো

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস। এরপর তার উত্তর লিখে পরীক্ষার্থীদের সরবরাহ করার জন্য চলছে কর্মযজ্ঞ। এই ঘটনা জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার গাইবান্ধা সুরুজ্জাহান উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের। প্রকাশ্যে নকলের এমন উৎসব চললেও তা দেখার যেন কেউ নেই।

এদিকে, কুড়িগ্রামে এসএসসির প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় আরও দুই শিক্ষকের দুই দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার গাইবান্ধা সুরুজ্জাহান উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের আশপাশে জায়গায় জায়গায় জটলা বেধে ব্যস্ত সময় পার করতে দেখা যায় অনেক মানুষকে। তাদের কাছে গিয়ে বোঝা যায় কেন্দ্রে নয় এসএসসি পরীক্ষা চলছে কেন্দ্রের বাইরেই।

পরীক্ষা শুরুর কিছুক্ষণের মধ্যেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশ্নপত্র চলে যাচ্ছে কেন্দ্রের বাইরে।

এরপর বই ঘেটে, মোবাইলে সার্চ দিয়ে চলে উত্তর খোঁজার তৎপরতা। কাজ শেষে স্কুলটির জানালা বা সরাসরি অবাধেই সরবরাহ করা হয় এসব নকল। এসএসসি পরীক্ষা শুরুর পর থেকে এভাবেই চলছে এই কেন্দ্রের সব পরীক্ষা।

এ বিষয়ে গাইবান্ধা সুরুজ্জাহান উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও কেন্দ্র সচিব আব্বাস উদ্দীন বলেন, সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর হুবহু লেখা যায় না। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা চেষ্টা করেছে বাইরে থেকে যেন কেউ না আসতে পারে।

ইসলামপুরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানভীর হাসান বলেন, এখানে সার্বক্ষণিকভাবে একজন বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। উনি কেন্দ্রের পরিবেশ ও নিরাপত্তার বিষয়ে তদারকি করছেন। ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা যেন না ঘটে, সেজন্য কার্যকরী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তারা।

এদিকে, নকলের অভিযোগ তদন্তে কেন্দ্রটি পরিদর্শনে আসে ময়মনসিংহ অঞ্চলের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের পরিচালকসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর, ময়মনসিংহ অঞ্চলের পরিচালক অধ্যাপক মো. আজহারুল হক বলেন, অন্যায় কিছু থাকলে প্রতিকার করা হবে।

অন্যদিকে, কুড়িগ্রামে প্রশ্নপত্র ফাঁস মামলায় গ্রেপ্তার ৬ আসামির মধ্যে ভুরুঙ্গামারী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মাওলানা জোবায়ের হোসেন ও আমিনুর রহমান রাসেলের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত। কুড়িগ্রাম চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সুমন আলীর আদালত দুই দিনের এই রিমান্ড রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

news24bd.tv/তৌহিদ

এই রকম আরও টপিক