নওগাঁয় শাশুড়িকে ধর্ষণের অভিযোগে জামাই গ্রেফতার
নওগাঁয় শাশুড়িকে ধর্ষণের অভিযোগে জামাই গ্রেফতার

সংগৃহীত ছবি

নওগাঁয় শাশুড়িকে ধর্ষণের অভিযোগে জামাই গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক

নওগাঁয় শাশুড়িকে জোরপূর্বক ধর্ষণের ঘটনার মামলায় জামাই ফরহাদকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। বুধবার (৫ অক্টোবর) ভোরে ঢাকার তুরাগ থানার চান্ডালভোগ জামে মসজিদের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ফরহাদ নওগাঁ সদর থানার দুবলহাটি বনগাঁ গ্রামের মৃত মান্নানের ছেলে।

র‌্যাব-৫ নাটোর ক্যাম্প থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা যায়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়- ১১ বছরের নাতী মারা গেলে মেয়েকে দেখতে জামাই ফরহাদের বাড়িতে যান ভুক্তভোগী শাশুড়ি। গত ২১ সেপ্টেম্বর খাওয়া শেষে রাত ১০টার দিকে পাশের রুমে শাশুড়ি ঘুমিয়ে পড়ে। রাত ৩টার দিকে ফরহাদ চুপিসারে তার শাশুড়ির রুমে গিয়ে তার স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়। ভুক্তভোগী বুঝতে পেরে তার মেয়েকে ডাক দেওয়ার চেষ্টা করলে ফরহাদ মুখ চেপে ধরে এবং মেরে ফেলার ভয়-ভীতি দেখিয়ে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

ভুক্তভোগী ভয়ে ও লজ্জায় কাউকে বিষয়টি জানায়নি। পরদিন বিকেলে ৪টার দিকে ভুক্তভোগী শারীরিকভাবে অসুস্থ হলে বিষয়টি তার মেয়েকে জানায় ও নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেন। পরবর্তীতে ভুক্তভোগী বাদী হয়ে নওগাঁ সদর থানায় মামলা দায়ের করেন।

ঘটনার পর থেকে আসামি ফরহাদ পলাতক ছিলেন। পরবর্তীতে র‌্যাব-৫ নাটোর ক্যাম্প কোম্পানি অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ফরহাদ হোসেন এবং কোম্পানি উপ-অধিনায়ক মো. রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে ঢাকার তুরাগ থানার চান্ডালভোগ জামে মসজিদের সামনে থেকে পলাতক আসামি ফরহাদকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার আসামিকে নওগাঁ সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়।
news24bd.tv/আলী