সাহিত্যে নোবেল পেলেন ফরাসি নাগরিক অ্যানি এখঁনু
সাহিত্যে নোবেল পেলেন ফরাসি নাগরিক অ্যানি এখঁনু

সংগৃহীত ছবি

সাহিত্যে নোবেল পেলেন ফরাসি নাগরিক অ্যানি এখঁনু

অনলাইন ডেস্ক

২০২২ সালে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন ফরাসি নাগরিক অ্যানি এখঁনু। বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) সুইডেনের স্টকহোমে রয়্যাল সুইডিশ অ্যাকাডেমি সাহিত্যে নোবেল বিজয়ীর নাম ঘোষণা করে।

সাহস ও ব্যবচ্ছেদীয় প্রখরতার সমন্বয়ে ব্যক্তিগত স্মৃতির শেকড়, বিচ্ছিন্নতা ও সম্মিলিত সংযম উন্মোচন করার জন্য তাকে নোবেল পুরস্কারে ভূষিত করা হয়েছে বলে জানিয়ে সুইডিশ অ্যাকাডেমি।

নোবেল প্যানেলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এখঁনু লিঙ্গ, ভাষা এবং শ্রেণী সম্পর্কিত শক্তিশালী বৈষম্য দ্বারা চিহ্নিত একটি জীবন ধারাবাহিকভাবে পরীক্ষা করেছেন।

তার ত্রিশটিরও বেশি সাহিত্যকর্ম রয়েছে।

১৯৪০ সালে জন্ম গ্রহণ করা নোবেল জয়ী এখঁনু নরম্যান্ডির ছোট শহর ইভেটোতে বড় হয়েছেন। এই ছোট্ট শহরে তার বাবা-মা একটি মুদির দোকান ও ক্যাফে চালাতেন।  

নোবেল প্যানেল বলেছে, এখঁনুকে লেখক হদে দীর্ঘ এবং কঠিন পথ পাড়ি দিতে হয়েছে।

৮২ বছর বয়সী লেখক লেখার মুক্তি ও শক্তিতে বিশ্বাস করেন। তার কাজ আপসহীন। তিনি সরল ভাষায় লেখেন।

তার লেখা প্রথম উপন্যাস ‘লে আরমোয়ার বিড’ ১৯৭৪ সালে প্রকাশিত হয়। কিন্তু ২০০৮ সালে ‘লে আনি’ প্রকাশ হওয়ার পর তিনি আন্তর্জাতিক পরিচিতি পান। এটি ২০১৭ সালে ‘দ্য ইয়ার্স’ নামে ভাষান্তরিত হয়।

এখঁনু বলেন, বিশ্বব্যাপী সামাজিক বৈষম্য আমাকে একজন লেখক হয়ে উঠতে সাহায্য করেছে। কল্পনার আবরণ ছিঁড়তে আমি আমার ভাষাকে ‘ছুরি’ হিসেবে ব্যবহার করতে পছন্দ করি।

৩ অক্টোবর চিকিৎসা বিজ্ঞানে বিজয়ীদের নাম ঘোষণার মধ্য দিয়ে ২০২২ সালের নোবেল পুরস্কার দেওয়া শুরু হয়। এখনও পর্যন্ত চিকিৎসা, রসায়ন, পদার্থবিজ্ঞান ও সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার দেওয়া হল। চলিত বছর চিকিৎসা বিজ্ঞানে নোবেল পেয়েছেন সুইডেনের জিনতত্ত্ববিদ সভান্তে পাবো, পদার্থে ফরাসি পদার্থবিজ্ঞানী অ্যালাইন অ্যাসপেক্ট, মার্কিন পদার্থবিজ্ঞানী জন এফ ক্লজার ও অস্ট্রিয়ার পদার্থবিজ্ঞানী অ্যান্টন জেলিঙ্গার, রসায়নে ক্যারোলিন আর. বের্তোজি, মর্টেন মেলডাল এবং কে. ব্যারি শার্পলেস।  

news24bd.tv/হারুন