পাল্টা জবাবে দ.কোরিয়ার যুদ্ধবিমান মহড়া
পাল্টা জবাবে দ.কোরিয়ার যুদ্ধবিমান মহড়া

সংগৃহীত ছবি

পাল্টা জবাবে দ.কোরিয়ার যুদ্ধবিমান মহড়া

উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের মহড়া নতুন নয়। প্রায়ই দেশটি এ মহড়া চালিয়ে শত্রু পক্ষকে চাপে রাখার চেষ্টা করে। এবার উত্তর কোরিয়ার এক ডজন যুদ্ধবিমান উড়িয়ে বোমা হামলা চালানোর মহড়ার প্রতিবাদে যুদ্ধবিমানের মহড়া চালালো দক্ষিণ কোরিয়া।

বৃহস্পতিবার প্রতিবেশী উত্তর কোরিয়ার যুদ্ধবিমানের মহড়ার প্রতিক্রিয়ায় দক্ষিণ কোরিয়া অন্তত ৩০টি যুদ্ধবিমান উড়িয়েছে বলে জানা গেছে।


 
এ বিষয়ে সিউলের জয়েন্ট চিফ অব স্টাফ বলেন, আন্তঃকোরীয় আকাশ সীমানার উত্তরে আটটি যুদ্ধবিমান এবং চারটি বোমারু বিমান উড়িয়েছে উত্তর কোরিয়া। পিয়ংইয়ংয়ের সামরিক বাহিনী আকাশ থেকে ভূপৃষ্ঠে গোলাবর্ষণের মহড়া চালিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

উত্তর কোরিয়ার বোমা হামলার এই মহড়ার পর দক্ষিণ কোরিয়ায় ব্যাপক উদ্বেগ দেখা দেয়। তবে দমে যায়নি দক্ষিণ কোরিয়া।

প্রতিবেশীর  মহড়ার প্রতিক্রিয়া হিসেবে তাৎক্ষণিকভাবে অন্তত ৩০টি যুদ্ধবিমান মোতায়েন করেছে দক্ষিণ কোরিয়া।  
পিয়ংইয়ংয়ের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার মাঝে এসব যুদ্ধবিমান অত্যন্ত সুরক্ষিত সীমান্ত এলাকার আকাশে টহল দিয়েছে বলে দক্ষিণের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।  

কোরীয় উপকূলে মার্কিন বিমানবাহী রণতরী মোতায়েনের নিন্দা এবং জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকের মাত্র এক ঘণ্টা পর উত্তর কোরিয়া বৃহস্পতিবার জাপানের দিকে সমুদ্রে দুটি স্বল্প-পাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে।

ওয়াশিংটন এবং সিউলের কর্মকর্তারা বলেছেন, ২০২২ সালের দশ মাসে উত্তর কোরিয়া কমপক্ষে ৪০টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে। এর মধ্যে আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রও (আইসিবিএম) রয়েছে। এছাড়া তারা পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

news24bd.tv/হারুন