ধর্ষণের অভিযোগে দেশে ফিরতেই লামিচানেকে ধরে নিয়ে গেল পুলিশ 
ধর্ষণের অভিযোগে দেশে ফিরতেই লামিচানেকে ধরে নিয়ে গেল পুলিশ 

সংগৃহীত ছবি

ধর্ষণের অভিযোগে দেশে ফিরতেই লামিচানেকে ধরে নিয়ে গেল পুলিশ 

অনলাইন ডেস্ক

দেশে ফিরতেই পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হলেন নেপাল জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সন্দীপ লামিচানে। ধর্ষণ মামলায় মাসখানেক আগে তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়। এএফপিকে তার আটকের খবর নিশ্চিত করেছেন কাঠমান্ডু ডিস্ট্রিক পুলিশের মুখপাত্র দিনেশ রাজ মৈনালি।

গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির পর আজ নেপাল ফেরেন লামিচানে।

কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের পরপরই তাকে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ। দেশের বাইরে থাকায় তাকে গ্রেপ্তারে ইন্টারপোলের সহযোগিতাও নিয়েছিল নেপাল পুলিশ।

লামিচানে অবশ্য দেশে ফেরার ঘোষণা দিয়ে রাখায় ইন্টারপোলকে তেমন কিছু করতে হয়নি। তাকে আটক করতে বেশি বেগ পেতে হয়নি নেপাল পুলিশকেও।

কেননা কবে, কখন, কোন ফ্লাইটে দেশে ফিরবেন সেটা এক ফেসবুক বার্তায় আগেই জানিয়ে রেখেছিলেন নেপালের এই তারকা ক্রিকেটার।

গ্রেপ্তারের আগে একাধিকবার তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা বলে নিজেকে নির্দোষ দাবি করেন লামিচানে। ‘ষড়যন্ত্রমূলক মামলা’য় আইনি লড়াই চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন ২২ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।

গেল মাসে লামিচানের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে মামলা করেন ১৭ বছর বয়সী এক কিশোরী। তার দাবি, ভক্ত হিসেবে দেখা করতে গিয়ে লামিচানের ধর্ষণের শিকার তিনি। ওই কিশোরী মামলা করার আগেই দেশের হয়ে সিরিজ এবং সিপিএল খেলতে নেপাল ছাড়েন লামিচানে।

এর দুই দিন পর কাঠমান্ডুর একটি আদালত লামিচানের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। এ ঘটনায় নেপালের অধিনায়কত্ব হারান লামিচানে। বাদ পড়েন সিপিএল থেকেও। তবে লামিচানে জানিয়েছেন, মামলায় লড়ে আবার জাতীয় দলে ফেরাই এখন তার একমাত্র লক্ষ্য।

news24bd.tv/সাব্বির