মিয়ানমারের তিন অস্ত্র ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা
মিয়ানমারের তিন অস্ত্র ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা

সংগৃহীত ছবি

মিয়ানমারের তিন অস্ত্র ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা

অনলাইন ডেস্ক

গত বছরের শুরুতে সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে মিয়ানমারে ক্ষমতায় আসে জান্তা সরকার। ওই সময় সামরিক বাহিনীকে রাশিয়ার তৈরি অস্ত্র সরবরাহ করে দেশটির একটি ব্যবসায়ী গ্রুপ। এর জেরে তাদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। খবর আল-জাজিরার।

প্রতিবেদনে কাতার ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যমটি জানায়, মিয়ানমারের সামরিক সরকারকে অস্ত্র সরবরাহ করেছিল ডাইনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের মালিক অং মো মিন্ট, হ্লাইং মো মিন্ট এবং কোম্পানিটির পরিচালক মায়ো থিসার। তারা বেলারুশ থেকে রাশিয়ান অস্ত্র ও উড়োজাহাজ ক্রয় করে জান্তা সরকারকে সরবরাহ করে। এর জেরে তাদের নিষেধাজ্ঞার কালো তালিকায় রাখা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) এক বিবৃতিতে মার্কিন ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট জানায়, যাদের নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে তারা মিয়ানমারের প্রতিরক্ষা খাতে কাজ করে।

তারা সামরিক বাহিনীকে অস্ত্র ও অন্যান্য বস্তুগত সহায়তা দিয়ে শাসকদের নিপীড়নমূলক কর্মকাণ্ড করতে সহযোগিতা করেছে।

ওই বিবৃতিতে ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট আরও জানায়, এই নিষেধাজ্ঞাগুলো বার্মার লোকদের লক্ষ্য করে দেয়া হয়নি। দীর্ঘকাল ধরে যারা নিষ্ঠুর শাসন ভোগ করছে তাদের জন্য দেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন বলেন, ‘রাশিয়া ও বেলারুশের সঙ্গে মিয়ানমারের সামরিক সম্পর্কের জেরে এই নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। ’

সবশেষ এই নিষেধাজ্ঞায় মিয়ানমারের সাবেক পুলিশ প্রধান থান হ্লাইংকেও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। অভ্যুত্থানের পর বিক্ষোভের বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর।

২০২১ সালে ফেব্রুয়ারিতে গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত অং সান সু চির সরকারকে হটিয়ে ক্ষমতা দখল করে জান্তা সরকার। এরপর থেকে দেশটিতে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে।  
মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলোর মতে, মিন অং হ্লাইং এর নেতৃত্বে অভ্যুত্থানের পর থেকে দুই হাজার ৩০০ এরও বেশি বেসামরিক লোক নিহত হয়েছে এবং ১০ লাখ মিলিয়ন মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে।

জান্তা সরকারকে সবচেয়ে বেশি অস্ত্র সরবরাহ করে রাশিয়া। এমনকি অভ্যুত্থান পরবর্তী সময়ে সামরিক সরকারকে রক্ষায় কাজ করছে তারা। গত মাসে রাশিয়া সফর করেন মিন অং হ্লাইং।

news24bd.tv/মামুন