পেঁয়াজের দাম বাড়তি, কমেছে ডিমের দাম
পেঁয়াজের দাম বাড়তি, কমেছে ডিমের দাম

সংগৃহীত ছবি

পেঁয়াজের দাম বাড়তি, কমেছে ডিমের দাম

অনলাইন ডেস্ক

সপ্তাহের ব্যবধানে কমেছে ডিমের দাম। তবে বেড়েছে পিঁয়াজ ও মুরগির দাম। এছাড়া অন্য সব পণ্যের দাম অপরিবর্তিত আছে। শুক্রবার (১৪ অক্টোবর) সকালে রাজধানীর বাজার ঘুরে এসব চিত্র উঠে এসেছে।

বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ফার্মের মুরগির লাল ডিমের ডজন বিক্রি হচ্ছে ১৪০, হাঁসের ডিমের ডজন বিক্রি হচ্ছে ১৯০ থেকে ১৯৫ টাকা। দেশি মুরগির ডিমের ডজন ২১০ থেকে ২২০ টাকা।  

বাজারে সবজির দাম অপরিপর্তিত রয়েছে। আকারভেদে বাঁধাকপি বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকায়।

শসা কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকায়। লম্বা বেগুনের কেজি ৮০, গোল বেগুন ১২০, টমেটো ১৪০, সিমের কেজি ১২০ থেকে ১৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।  

এছাড়া করলা ৮০ টাকা, চাল কুমড়া পিস ৬০, প্রতি পিস লাউ আকারভেদে বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকায়, মিষ্টি কুমড়ার কেজি ৫০, চিচিঙ্গা ৬০, পটল ৬০, ঢেঁড়স ৭০, কচুর লতি ৮০, পেঁপের কেজি ৪০, বরবটির কেজি ‌৮০, ধুন্দলের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকায়।

কাঁচামরিচ কেজি বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকায়। কাঁচা কলার হালি বিক্রি হচ্ছে ৪০, লেবুর হালি বিক্রি হচ্ছে ১৫ থেকে ২০ টাকায়।  

বাজারে আলুর কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৪০ টাকায়। তবে আমদানি কম থাকায় পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। দেশি পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেজি। ভারতীয় পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪৫ থেকে ৫০ টাকা। অন্য দিকে রসুনের কেজি ৪০ থেকে ৪৫, চায়না রসুন বিক্রি হচ্ছে ১৪৫ থেকে ১৫০। আদার কেজি ৯০ থেকে ১১০ টাকা। দেশি মুশুরের ডালের কেজি ১৪০ টাকা। ইন্ডিয়ান মুশুরের ডালের কেজি ১০০, লবণের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩৮ থেকে ৪০ টাকা।

বাজারে খোলা চিনি প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৯৫ টাকায়। আগের তুলনায় দাম বেড়েছে ৫ টাকা। এছাড়া প্যাকেট চিনি কেজি বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকা, যা আগে ছিল ৯৫ টাকা। আর লালা চিনির কেজি বিক্রি হচ্ছে ১০৫ টাকায়।  

অন্যদিকে সপ্তাহের ব্যবধানে ১০ থেকে ৩০ টাকা দাম বেড়েছে ব্রয়লার, লেয়ার এবং সোনালী মুরগিতে। বাজারে গরুর মাংসের কেজি ৭০০ থেকে ৬৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। খাসির মাংসের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৮৫০ থেকে ৯০০ টাকায়।

এদিকে ব্রয়লার মুরগির দাম বেড়ে কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৮০ টাকা। সোনালি মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩১০ থেকে ৩২০, লেয়ার মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৯০ টাকায়।  

news24bd.tv/হারুন