বাইডেনের সঙ্গে আলোচনার প্রয়োজন দেখছেন না পুতিন
বাইডেনের সঙ্গে আলোচনার প্রয়োজন দেখছেন না পুতিন

সংগৃহীত ছবি

বাইডেনের সঙ্গে আলোচনার প্রয়োজন দেখছেন না পুতিন

অনলাইন ডেস্ক

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনে খাদ্যশস্য রপ্তানিতে মানবিক করিডর বন্ধের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, সন্ত্রাসমূলক কাজের জন্য ব্যবহার করা হলে এটি বন্ধ করে দেওয়া হবে। শুক্রবার কাজাখিস্তানের রাজধানী আস্তানায় সংবাদ সম্মেলনে পুতিন এই মন্তব্য করেন।  

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ইউক্রেন এখন শান্তি আলোচনায় আসতে অস্বীকার করছে, যখন দুই দেশের মধ্যে সংঘাতের অবসান ঘটাতে সম্ভাব্য আলোচনার বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, কিয়েভ সরকার বলছিল; তারা আলোচনা চায় এবং স্পষ্টতই তাদের জন্য আলোচনার অনুরোধ করা হয়েছিলো। কিন্তু এখন তারা একটি আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত জারি করেছে যার ফলে আলোচনার পথ রুদ্ধ হয়ে গেছে।

পুতিন স্মরণ করেন যে, মার্চের শেষের দিকে তুরস্কের মধ্যস্থতায় আলোচনার সময় রাশিয়া এবং ইউক্রেন একটি প্রাথমিক চুক্তিতে পৌঁছেছিল যা শত্রুতা বন্ধ করতে পারে। এই চুক্তিগুলি প্রায় প্রাথমিকভাবে করা হয়েছিল।

কিন্তু কিয়েভ থেকে সৈন্যদের প্রত্যাহার করার সাথে সাথে কিয়েভের নেতৃত্ব আলোচনা করার সমস্ত ইচ্ছা হারিয়ে ফেলে।

সংবাদ সম্মেলনে রুশ প্রেসিডেন্ট যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বাইডেনের সঙ্গে কথা বলার কোনো প্রয়োজন নেই বলেও উল্লেখ করেন।

জার্মানির বিষয়ে পুতিন বলেন, জার্মানি তার জাতীয় স্বার্থের চেয়ে ন্যাটোর প্রতি আনুগত্যকে অগ্রাধিকার দিয়ে একটি ভুল করছে।

পুতিন বলেন, রাশিয়ার পক্ষে একটি অক্ষত নর্ড স্ট্রীম- ২ গ্যাস পাইপলাইনের মাধ্যমে জার্মানিতে গ্যাস সরবরাহ করা সম্ভব হবে। তবে এই রখম কোনও সিদ্ধান্ত রাশিয়ার ব্যবসা নয় বলেও উল্লেখ করেন পুতিন।

আগামী মাসে ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী বালিতে জি-২০ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে পুতিন যাবেন বলে ‍গুঞ্জন উঠেছিল। এ প্রসঙ্গে পুতিন বলেন,  জি-২০ সম্মেলন নিয়ে  তিনি এখনো সিদ্ধান্ত নেননি।  

সূত্র: গার্ডিয়ানআরটি

news24bd.tv/আলী