এ মাসেই উদ্বোধন হচ্ছে ১০০টি সেতু: ওবায়দুল কাদের  
এ মাসেই উদ্বোধন হচ্ছে ১০০টি সেতু: ওবায়দুল কাদের  

ওবায়দুল কাদের (ছবি: সংগৃহীত)

এ মাসেই উদ্বোধন হচ্ছে ১০০টি সেতু: ওবায়দুল কাদের  

অনলাইন ডেস্ক

চলতি মাসেই ১০০টি সেতুর উদ্বোধন করা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘এর মধ্যে ৫০টিরও বেশি হলো চট্টগ্রামে। ’ রোববার (১৬ অক্টোবর) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।    

তিনি জানান, এ বছর এমআরটি লেন-৬ এর প্রথম ফেইজের উদ্বোধন হবে এবং কর্ণফুলী টানেলেরও উদ্বোধন হবে এ বছর।

 

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘একটা প্রকল্প গলার কাটা। সেটা হলো গাজীপুরের বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট প্রকল্প। ’ তিনি বলেন, ‘পদ্মা সেতুসহ দেশে এত এত মেগা প্রকল্প যেগুলো হচ্ছে, তা দেশের অর্থনৈতিক অবস্থার পরিবর্তন করেছে। এখন কোনো অপ্রয়োজনীয় প্রকল্প নেওয়া হবে না।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বিশ্বজুড়ে যে সংকট হচ্ছে এটা সবাইকেই মোকাবেলা করতে হবে। এই জ্বালানি সংকট বাংলাদেশের সৃষ্টি নয়। কিন্তু বিরোধী দলের এর জন্য সরকারের পদত্যাগ চাওয়া অবাস্তব। ’ 

আগামীতে খদ্য ঘাটতি হতে পারে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘খাবার নিয়ে বিপদে পড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। তারপরও সরকার আগাম সতর্ক আছে। ’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘রিজার্ভ যা আছে তা দিয়ে আগামী পাঁচ-ছয় মাস চলতে পারবে দেশ। রেমিট্যান্স বাড়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। ’

তিনি বলেন, ‘ব্রুনাইয়ের সুলতানের কাছে তেল ও গ্যাস পাওয়ার বিষয় নিয়ে পজিটিভ কিছু হবে। ’

নির্বাচন নিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নির্বাচন নিয়ে কমিশনের ওপর আগেও হস্তক্ষেপ করা হয়নি। এবারও করা হবে না। নির্বাচন কমিশনের অধীনে দেশে আগামী নির্বাচন হবে।  তত্ত্বাবধায়ক সকার আইনগতভাবে বাতিল হয়ে গেছে। সেটার ভূত এখনও নামাতে পারছে না বিএনপি। উচ্চ আদালত থেকে যা বাদ হয়েছে তা আর আসবে না। ’

তিনি বলেন, ‘ইভিএম এর বিপরীতে কথা বলা বিএনপির রাজনৈতিক উদ্দেশ্য। ইভিএমে স্বচ্ছ ভোট হবে, এ জন্য সরকার চায় শতভাগ ইভিএম হোক। বিএনপি কোন যুক্তিতে এর বিরোধিতা করছে। ’

তিনি বলেন, ‌‘এত বছরে বিএনপি খালেদা জিয়ার জন্য চোখে পড়ার মতো কোনো আন্দোলন করতে পারেনি। তাই তাদের মুখে আন্দোলন করে সরকার হটানোর কথা মানায় না। কিন্তু আন্দোলন করতে গিয়ে তারা সহিংস হয়ে উঠবে কিনা তা নিয়ে ভয়ে আছে সরকার। দেশের মানুষের জানমালের ক্ষয়ক্ষতি রক্ষা করার জন্য সরকার চেষ্টা করবে। সরকারের শুধু কথা হলো, শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি করতে হবে। ’ 

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘যানজট কবে বন্ধ হবে এটা নিয়ে দিনক্ষণ বলা যাবে না। মানুষকে ধৈর্য ধরতে হবে, যানজট নিয়ে অধৈর্য হলে চলবে না, সরকার চেষ্টা করছে। তবে যানজটের জন্য মানুষের কষ্ট হচ্ছে এটা সত্য। ’

news24bd.tv/ইস্রাফিল