গাজীপুরে প্রতিপক্ষের ঘুষিতে প্রাণ গেল বৃদ্ধের
গাজীপুরে প্রতিপক্ষের ঘুষিতে প্রাণ গেল বৃদ্ধের

প্রতীকী ছবি

গাজীপুরে প্রতিপক্ষের ঘুষিতে প্রাণ গেল বৃদ্ধের

গাজীপুর প্রতিনিধি

পারিবারিক কলহের জেরে ঘুষিতে হাবিবুর রহমান (৭০) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার সকাল সাড়ে ৮টায় গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের কপাটিয়াপাড়া গ্রামে। পুত্রবধূ ঝর্নাকে মারধরের প্রতিবাদ করতে গিয়ে প্রতিবেশী যুবকের ঘুষিতে জ্ঞান হারান হাবিবুর। তাকে স্বজনরা উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত হাবিবুর ওই গ্রামের মৃত ইন্নছ আলীর ছেলে। অভিযুক্তরা হলো- ওই গ্রামে মো. আবুল কালাম, আবুল কালামের ছেলে শফিকুল ইসলাম ও শফিকুলের স্ত্রী ঝর্না বেগম।

নিহতের পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রোববার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে অভিযুক্ত শফিকুল ইসলাম গং নিহতের পুত্রবধূ ঝর্নার সাথে পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়ায় জড়িয়ে পড়ে। এ সময় প্রতিপক্ষরা ঝর্নাকে মারধর করে।

পুত্রবধূকে রক্ষা করতে এগিয়ে যান বৃদ্ধ হাবিবুর। এ সময় শফিকুল ওই বৃদ্ধের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে।

নিহতের মেয়ে সেলিনা জানান, ভাবীকে মারধরের সময় বাবা এগিয়ে গেলে শফিকুল তার গলায় থাকা গামছা ধরে টানা-হেঁচড়া করে কিল, ঘুষি মারে। এতে ঘটনাস্থলে বাবা অজ্ঞান হয়ে পড়ে। তাকে উদ্ধার করে স্বজনরা চকপাড়া উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যান। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় চিকিৎসক তাকে শ্রীপুর উপজেলা হাসপাতালে পাঠান। বেলা সোয়া ১১টার দিকে উপজেলা হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. মালিহা বিনতে মোস্তফা জানান, হাবিবুর রহমানকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। হাসপাতালে আসার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) আনিসুর আশেকীন জানান, দুপক্ষের ঝগড়ার সময় হাবিবুর জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। তার মরদেহ শ্রীপুর হাসপাতালে আছে। স্বজনদের অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

news24bd.tv/তৌহিদ