বার্সাকে হারিয়ে শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার রিয়ালের
বার্সাকে হারিয়ে শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার রিয়ালের

সংগৃহীত ছবি

এল ক্লাসিকো

বার্সাকে হারিয়ে শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার রিয়ালের

অনলাইন ডেস্ক

চ্যাম্পিয়নস লিগে ইন্টার মিলানের বিপক্ষে ড্র বার্সেলোনাকে মানসিকভাবে কতটা ভেঙেচুরে দিয়েছে তার প্রমাণ মিলল আজ এল ক্লাসিকোতে। স্প্যানিশ ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে প্রাচীন এবং মর্যাদার লড়াইয়ে রিয়াল মাদ্রিদের চোখে চোখ রেখে লড়াই করতে পারেনি কাতালান ক্লাবটি। সান্তিয়াগো বার্নাব্যুয়ে হেরেছে ৩-১ গোলে।

গেল মৌসুমে রিয়ালের ঘর থেকে তাদেরই চার গোলের মালা পরিয়ে কাতালুনিয়ায় ফিরেছিল বার্সেলোনা।

সেবারের তুলনায় এবার জাভির দল ছিল আরও শক্তিশালী। তবে রক্ষণের অমার্জনীয় সব ভুলে বার্সার কপালে জুটল হার। অন্যদিকে, দারুণ-দুর্দান্ত ফুটবল উপহার দিয়ে লা লিগার শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করল রিয়াল।

এল ক্লাসিকোর আগে বার্সা-রিয়াল দুই দলের পয়েন্টই ছিল সমান ২২।

তবে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় শীর্ষে ছিল বার্সা। বার্নাব্যুয়ে শুরু থেকে তাই জয়ের নেশায় দৌড়াতে থাকে রিয়াল ফুটবলাররা। ফলও এসে যায় খুব দ্রুত। যেই বেনজেমা গত পাঁচ ধরে গোলের দেখা পান না, তার গোলেই ম্যাচে লিড নেয় রিয়াল।

ম্যাচের তখন ১১ মিনিট। সের্হিও বুসকেটস টনি ক্রুসকে আটকা পারলেও, তার আগেই ক্রুস বল বাড়ান সামনে দৌড়াতে থাকা ভিনিসিয়ুস জুনিয়রকে। ভোঁ দৌড়ে ভিনিসিয়ুস ডি বক্সে ঢুকে শট নেন গোলের জন্য। তবে বল বার্সা গোলরক্ষক টের স্টেগানের গায়ে লেগে চলে যায় সামনে থাকা করিম বেনজেমার কাছে। এই ফরাসি তারকার শট ঠিকই ফাঁকফোকর গলে চলে যায় জালে।

বেনজেমার ওই গোলের পর মনোবল আরও ভেঙে যায় বার্সার। রিয়াল ঘরের মাঠে রীতিমতো শাসন করতে থাকে অতিথিদের। দেম্বেলে-রাফিনিয়ারা মাঝেমধ্যে আক্রমণে উঠলেও রিয়ালের রক্ষণ-দেয়াল ভাঙা যাচ্ছিল না কিছুতেই। মাঝমাঠের সঙ্গে আজ কোনো যোগাযোগ ছিল না রবার্ট লেভানডস্কিরও।

বার্সা যখন আক্রমণে উঠতে খাবি খাচ্ছে, তখনই চমৎকার এক গোল করে বসেন ফেদে ভালবের্দে। ৩৫ মিনিটে বাঁ প্রান্ত থেকে ফারলাঁ মেন্দির নিচু হয়ে আসা বল আগে নিয়ন্ত্রণে নেন ভালবের্দে। পরে তার নেওয়া শট গোলার গতিতে জালে প্রবেশ করে। বেনজেমা-ভালবের্দের এই দুই গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় রিয়াল।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে রিয়াল আবার এগিয়ে গিয়েছিল। বার্সা রক্ষণের ভুলের সুযোগ নিয়ে আবারও স্কোরশিটে নাম তোলেন বেনজেমা। তবে এবার বল পাওয়ার আগে অফসাইডে ছিলেন বলে সেই গোল বাতিল হয়। তিন নম্বর গোল হজমের হাত থেকে বাঁচার পর বার্সা নিজেদের অনেকটা গুছিয়ে নেয়। জাভি অদল-বদল করেন মাঠ এবং বেঞ্চের ফুটবলারদের।

সেই পরিকল্পনা কাজেও আসে। ৮৩ মিনিটে বার্সা একটি গোল শোধ দেয়। সেই গোলের কারিগর বদলি হয়ে নামা আনসু ফাতি। বাঁ প্রান্তে তার চিতার দৌড় রিয়াল রক্ষণকে ছিন্নভিন্ন করে ফেলে। পরে তার মাটি ঘেঁষা ক্রসে লেভানডস্কি ঠিকঠাক পা লাগাতে না পারলেও, আরেক বদলি ফেরান তোরেস ভুল করেননি। বার্সার নিভু নিভু আশা হুট করেই ফেরে সে গোলে।

তবে সেই আশা ভাঙতেও বেশি সময় লাগেনি। ম্যাচ ইনজুরি সময়ে গড়াতেই ডি বক্সের মধ্যে রিয়ালের ফরোয়ার্ড রদ্রিগো গোজের পায়ে পা দিয়ে আঘাত করেন বার্সা ডিফেন্ডার এরিক গার্সিয়া। শুরুতে তা রেফারির নজর এড়িয়ে গেলেও, ভিএআর (ভিডিও অ্যাসিস্টেন্ট রেফারি) দেখে পরে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। স্পটকিক থেকে রদ্রিগোই ব্যবধান করেন ৩-১।

ঘরের মাঠের এই জয়ে ৯ ম্যাচ শেষে ২৫ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে এখন রিয়াল। আর ২২ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে নেমে গেল বার্সেলোনা।

news24bd.tv/সাব্বির