স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের সুবিধা নিশ্চিতে কাজ করছেন বাজুস সভাপতি
স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের সুবিধা নিশ্চিতে কাজ করছেন বাজুস সভাপতি

সংগৃহীত ছবি

স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের সুবিধা নিশ্চিতে কাজ করছেন বাজুস সভাপতি

নিজস্ব প্রতিবেদক

সারাদেশের ৫৫ হাজার স্বর্ণ ব্যবসায়ীর সুবিধা নিশ্চিতে কাজ করছেন বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বাজুস) সভাপতি ও দেশের শীর্ষ স্থানীয় প্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর। সেইসাথে স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের একত্রিত হওয়ার পথ দেখাচ্ছেন তিনি।

শনিবার (২২ অক্টোবর) বাজুসের হবিগঞ্জ জেলা শাখার মতবিনিময় সভায় বক্তারা একথা বলেন। এদিন সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত হবিগঞ্জ পৌর টাউন হলে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বক্তারা বলেন, আগে বাজুসে অল্প সংখ্যক সদস্য ছিল, সায়েম সোবহান আনভীরের নেতৃত্বে এখন সদস্য সংখ্যা ৫৫ হাজার। তিনি এক লাখ স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে এখানে একত্রিত করতে চান। তিনি চান ব্যবসায়ীরা যেন নিরাপদে ও স্বচ্ছভাবে ব্যবসা পরিচালনা করেন। কম দামে স্বর্ণ বিক্রির নামে কেউ যেন ক্রেতাদের সঙ্গে প্রতারণা করতে না পারেন।
বাজুস সেই বিষয়টি নিশ্চিত করবে।

সভায় বক্তারা বলেন, আগামী বছরের মাঝামাঝিতে বাজুস দেশের ব্যবসায়ীদের বৈধভাবে স্বর্ণ সরবরাহ করবে। ব্যবসায়ীরা যদি স্বচ্ছতার সঙ্গে স্বর্ণ বিক্রি করেন তাহলে প্রশাসনকে জবাবদিহি করতে অসুবিধা হবে না, বাজুস সেই বিষয়টি নিশ্চিত করতে চায়।

বাজুস হবিগঞ্জ জেলা কমিটির সদস্য সমীর চন্দ্র বণিকের সভাপতিত্বে ও বিজয় বণিক দ্বিজুর পরিচালনায় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাজুসের সহ সভাপতি গুলজার আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ উত্তম বণিক, বাজুস কার্যনির্বাহী সদস্য ও বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ল অ্যান্ড মেম্বারশিপের সদস্য সচিব মো. রিপনুল হাসান, মো. আসলাম খান ও বাজুসের স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ডিস্ট্রিক্ট কমিটির সদস্য নীহার কুমার রায়।

সভা শেষে সমীর চন্দ্র বণিককে সভাপতি ও বিজয় বণিক দ্বিজুকে সাধারণ সম্পাদক করে হবিগঞ্জ জেলা শাখার নতুন কমিটি গঠন করা হয়। এসময় হবিগঞ্জ জেলার ৯টি উপজেলার বাজুসের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। পরে হবিগঞ্জ জেলা শহরে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়।

এই রকম আরও টপিক