সোমবার, ১৪ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ১০ মিনিট আগে

ভিক্ষুকমুক্ত ঝালকাঠি গড়তে তৎপর জেলা প্রশাসন

এস এম রেজাউল করিম • ঝালকাঠি প্রতিনিধি

ভিক্ষুকমুক্ত ঝালকাঠি গড়তে তৎপর জেলা প্রশাসন

ঝালকাঠি সদর উপজেলার নথুল্লাবাদের ভিক্ষুকদের পুনর্বাসনের জন্য প্রশিক্ষণ দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন।পুনর্বাসনের পর তারা কিভাবে অনুদান দেয়া মালামাল ও টাকা ব্যবহার করবে, সে বিষয়ে ধারণা দেয়া হয়।  

আজ (১৪ আগস্ট,মঙ্গলবার) বিকেলে সদর উপজেলা মিলনায়তনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আতাহার আলী ও নথুল্লাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রেজাউল কবির উপস্থিত ভিক্ষুকদের নিয়ে এ প্রশিক্ষণ পরিচালনা করেন। প্রশিক্ষণের পর তাদের যাতায়াত ভাতা প্রদান করা হয়। 

আগামীকাল বিকেলে নথুল্লাবাদের তালিকাভুক্ত ভিক্ষুকদের প্রত্যেককে ১০টি করে মুরগি, মুরগি পোষার একটি ঘর, ১০ কেজি করে মুরগির খাবার ও নগদ অর্থ প্রদান করা হবে বলে জানান ইউএনও আতাহার আলী। 

তিনি আরও জানান, এ কর্মসূচি উদ্বোধন করবেন জেলা প্রশাসক হামিদুল হক। বেশ কিছু দিন পূর্বে জেলা প্রশাসক নথুল্লাবাদ ইউনিয়নে সরেজমিনে গিয়ে চেয়ারম্যান রেজাউল কবিরের সহায়তায় এই ভিক্ষুকদের বাছাই করেন। 

এ ব্যাপারে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক হামিদুল হক বলেন, ‘ঝালকাঠিকে ভিক্ষুক মুক্ত করতেই আমরা এই প্রকল্প হাতে নিয়েছি।’

‘জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে আমরা প্রত্যেক উপজেলা থেকে ৫০ জন ভিক্ষুককে ইতোমধ্যেই প্রশিক্ষণ দিয়েছি। তাদের সমস্যা জানার চেষ্টা করেছি। সবকিছু বিবেচনা করেই কোন পদ্ধতিতে তাদের পুনর্বাসন করা হবে, সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

এই প্রকল্পে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের এক দিনের বেতন নিয়ে ২৩ লাখ টাকা ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে পাওয়া ২০ লাখ টাকা জমা করা হয়েছে। এর বাইরে সমাজ কল্যাণ মন্ত্রনালয় থেকে এ প্রকল্পে ৪ লাখ টাকা দেয়া হবে বলে জানান ডিসি হামিদুল।

রেজাউল/অরিন/নিউজ টোয়েন্টিফোর

মন্তব্য