বাবরকে ধুয়ে দিলেন শোয়েব আখতার
বাবরকে ধুয়ে দিলেন শোয়েব আখতার

সংগৃহীত ছবি

বাবরকে ধুয়ে দিলেন শোয়েব আখতার

অনলাইন ডেস্ক

প্রথমে ভারত এরপর খর্ব শক্তির জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেও হার দেখতে হয়েছে পাকিস্তানকে। এতে সেমি-ফাইনাল ঘিরে বাড়ছে অনিশ্চয়তা। দুটি ম্যাচেই শেষ ওভারে ম্যাচ হারতে হয়েছে পাকিস্তানকে। ফলে সমালোচনায় মুখর পাকিস্তান ক্রিকেট সমর্থকরা।

সেই তালিকা থেকে বাদ যাননি দেশটির কিংবদন্তি পেসার শোয়েব আখতারও। অধিনায়ক বাবর আজমকে ধুয়ে দিয়েছেন তিনি। প্রশ্ন তুলেছেন তার নেতৃত্ব নিয়ে।

পার্থে বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১ রানে হারে পাকিস্তান।

অথচ লক্ষ্যটা ছিল স্রেফ ১৩১ রানের। মোহাম্মদ ওয়াসিমের ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে প্রতিপক্ষকে অল্প রানে আটকে রাখা গেলেও। শেষ পর্যন্ত হারের স্বাদ পেতে হয়েছে পাকিস্তানকে। ব্যাটারদের ব্যর্থতায় ১ রানের হার দেখতে হয়েছে পাকিস্তানকে। উত্তরসূরিদের এমন হার হজম করতে পারেননি শোয়েব। পাকিস্তানের এই হারকে বিব্রতকর বলে টুইট করেন ম্যাচের পর। তাতেও ক্ষান্ত হননি শোয়েব। পরে নিজের ইউটিউব চ্যানেলে অধিনায়ক বাবরসহ পুরো দলের কড়া সমালোচনা করেন সাবেক গতিতারকা। পাকিস্তান টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গেছে বলেও মনে করেন তিনি।

শোয়েব আখতার বলেন, বিষয়টা কেন আপনারা অনুধাবন করতে পারছেন না, এটা আমি বুঝতে পারছি না। আমি আগেও বলেছি, আবারও বলছি, আমাদের টপ ও মিডল অর্ডার দিয়ে আমরা বড় সাফল্য পেতে পারি। তবে আমরা ধারাবাহিকভাবে জিততে পারছি না। পাকিস্তানের একজন বাজে অধিনায়ক আছে। যে কারণেই মূলত ম্যাচ হারতে হচ্ছে আমাদের। বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেছে পাকিস্তান। দুটি ম্যাচে মোহাম্মদ নাওয়াজ শেষ ওভারটি করেছে এবং আমরা ম্যাচগুলো হেরেছি।

ভারতের বিপক্ষে শেষ ওভারে ১৫ রান ডিফেন্ড করতে ব্যর্থ হন বাঁহাতি স্পিনার নাওয়াজ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তার সামনে সুযোগ এসেছিল ব্যাট হাতে শেষের নায়ক হওয়ার। ৩ বলে যখন দরকার ৩, স্ট্রাইকে ছিলেন তিনিই। কিন্তু পরের বল ব্যাটেই লাগাতে পারেননি। পঞ্চম বলে আউট হয়ে যান ক্যাচ দিয়ে। শেষ বলে দ্বিতীয় রানের চেষ্টায় রান আউট হন শাহিন শাহ আফ্রিদি।

বাবর ও রিজওয়ানের উদ্বোধনী জুটিতে পরিবর্তন আনতে হবে বলে সাম্প্রতিক সময়ে মত দিয়েছেন পাকিস্তানের অনেকেই। শোয়েবও তাই মনে করেন। তিনি আরও একবার আঙ্গুল তুলেছেন টিম ম্যানেজমেন্টের দিকে।

তিনি বলেন, বাবরের ওয়ান ডাউনে ব্যাট করা উচিত। শাহিন শাহ আফ্রিদির ফিটনেসের বড় সমস্যা রয়ে গেছে। অধিনায়কত্বে বড় ত্রুটি এবং ম্যানেজমেন্টেও বড় ঘাটতি আছে। আমরা আপনাদের সমর্থন করব, কিন্তু কোন ব্র্যান্ডের ক্রিকেট আপনারা খেলছেন? প্রতিপক্ষ এমনি এমনি আপনাদের জিতিতে দেবে, এমন আশা নিয়ে আপনারা কোনো টুর্নামেন্টে যেতে পারেন না।

সুপার টুয়েলভে নিজেদের পরবর্তী ম্যাচে আগামী রোববার নেদারল্যান্ডসের মুখোমুখি হবে পাকিস্তান। আরেকটি হারে শেষ হয়ে যেতে পারে তাদের সেমি-ফাইনালের ক্ষীণ আশা।

news24bd.tv/আমিরুল