ঘরের দরজা বন্ধ করে বাপ-ছেলের আত্মহত্যা
ঘরের দরজা বন্ধ করে বাপ-ছেলের আত্মহত্যা

সংগৃহীত ছবি

ঘরের দরজা বন্ধ করে বাপ-ছেলের আত্মহত্যা

অনলাইন ডেস্ক

বাগেরহাটে মোল্লাহাট উপজেলার বড় গাওলা গ্রামের নিজ বসত ঘর থেকে বাবা ও ছেলের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (২৮ অক্টোবর) রাত ৯ টার দিকে ঘরের দরজা ভেঙে গৃহকর্তা মো.হায়দার মোল্লা (২৮) ও তিন বছর বয়সী শিশুপুত্র জিসানের লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয় তাদের স্বজনরা। পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে বাবা ও ছেলের লাশ উদ্ধার করে।

বাগেরহাট জেলা পুলিশের মিডিয়া ছেলের প্রধান পুলিশ পরিদর্শক এস এম আশরাফুল আলম জানান, বাগেরহাটের মোল্লাহাট উপজেলার বড় গাওলা গ্রামের মোহাম্মদ হায়দার মোল্লা ঢাকার একটি বেসরকারি কোম্পানিতে চাকরি করেন।

পারিবারিক বিরোধের জের ধরে তার স্ত্রী জোবাইদা খাতুন স্বামীর বাড়ি ছেড়ে ৬ মাস ধরে তার বাবার বাড়িতে অবস্থান করছিলেন। হায়দার মোল্লার শিশু সন্তান জিসান দাদার বাড়িতেই থাকতো।  

তিনি আরও জানান, হায়দার বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) ঢাকা থেকে বাড়িতে আসেন। শুক্রবার রাতে নিজ ঘরের দরজা বন্ধ করে ছেলে জিসানকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করার পর হায়দার আত্মহত্যা করেন।

দীর্ঘ সময় ঘরের দরজা বন্ধ পেয়ে ডাকাডাকি করেও কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে রাত ৯টার দিকে ঘরের দরজা ভেঙে ফেলেন হায়দারের পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা। তারা দেখতে পান ঘরের খাটের উপর শিশু জিসানের নিথর দেহ পড়ে রয়েছে ও সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলছে হায়দার মোল্লার দেহ। এরপর খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ দুইটি উদ্ধার করে।

news24bd.tv/আমিরুল

এই রকম আরও টপিক