খুলনায় কিস্তি ও কমিশনের টাকা আত্মসাৎ, কারাগারে কর্মকর্তা  
খুলনায় কিস্তি ও কমিশনের টাকা আত্মসাৎ, কারাগারে কর্মকর্তা  

সংগৃহীত ছবি

খুলনায় কিস্তি ও কমিশনের টাকা আত্মসাৎ, কারাগারে কর্মকর্তা  

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

খুলনায় কিস্তি ও কমিশনের টাকা আত্মসাতের মামলায় জীবন বীমা করপোরেশনের ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার মুন্সি মাহাবুবুর রহমানকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (১ নভেম্বর) মহানগর স্পেশাল জজ আদালত তাকে কারাগের পাঠান। মামলার অপর আসামি জীবন বীমা করপোরেশনের সাবেক ডেপুটি ম্যানেজার এমএ বক্কার পলাতক রয়েছেন।  

এর আগে, ৭৪ জন ভুয়া গ্রাহক দেখিয়ে প্রথম কিস্তির টাকা ও কমিশন বাবদ প্রায় ২৯ লাখ ৬৪ হাজার টাকা আত্মসাতের ঘটনায় ম্যানেজার মুন্সি মাহাবুবুর রহমানের বিরুদ্ধে মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

২০১২ সালে দুদকের সাবেক সহকারি পরিচালক এনায়েত হোসেন বাদী হয়ে এ মামলা করেন।  

মঙ্গলবার ওই মামলায় হাজির হয়ে মাহাবুবুর রহমান জামিনের আবেদন করেন। কিন্তু বিচারক মাহমুদা খাতুন জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। দুদকের পিপি আইনজীবী খন্দকার মজিবর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 

তদন্তে দেখা যায়, ৭৪ জন গ্রাহকের মধ্যে ১৮ জনই মুন্সি মাহাবুবুর রহমানের আত্মীয়। বাকি গ্রাহকের নাম ও ঠিকানার বিষয়ে ভুল তথ্য দেওয়া হয়েছে। ২০১২ সালে ভুল তথ্য দিয়ে টাকা আত্মসাতের ঘটনায় দুদক মামলা করে। ২০১৯ সালের নভেম্বরে তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের সহকারি পরিচালক তরুণ কান্তি ঘোষ আদালতে প্রতিবেদন জমা দেন।