পরকীয়ার জেরে স্বামী-স্ত্রী মিলে কুপিয়ে হত্যা করল চা দোকানীকে
পরকীয়ার জেরে স্বামী-স্ত্রী মিলে কুপিয়ে হত্যা করল চা দোকানীকে

সংগৃহীত ছবি

পরকীয়ার জেরে স্বামী-স্ত্রী মিলে কুপিয়ে হত্যা করল চা দোকানীকে

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

পরকীয়ার জের ধরে স্বামী-স্ত্রী মিলে জাকির হোসেন (৩৫) নামের এক চা দোকানীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে। ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার বাক্তা দক্ষিণপাড়া এলাকায় বুধবার রাত আড়াইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পরে বৃহস্পতিবার ভোর ৬টার দিকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরি নিয়ে ফুলবাড়িয়া থানায় আত্মসমর্পণ করেন আফরোজা খাতুন (২৬)।  

ফুলবাড়িয়া থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, স্ত্রীর দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে তার স্বামী রফিকুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি স্বীকার করেছে। পরে শুক্রবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাদের জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

ওসি জানান, নিহত জাকির উপজেলার বাক্তা দক্ষিণপাড়া গ্রামের প্রয়াত মকবুল হোসেনের ছেলে। তিনি পেশায় একজন মুদি দোকানি।

জাকিরের স্ত্রী মর্জিনা বেগম বাদী হয়ে ওই স্বামী-স্ত্রীকে আসামি করে হত্যা মামলা করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, জাকির হোসেনের সাথে প্রতিবেশী রফিকুল ইসলামের স্ত্রী আফরোজা বেগমের সঙ্গে তাঁর পরকীয়ার সম্পর্ক ছিল। বিষয়টি নারীর স্বামী জেনে যান। পরকীয়ার সম্পর্ক ছিন্ন করতে কয়েকদফা চেষ্টা করে আফরোজা। কিন্তু জাকির হোসেন বিষয়টি এলাকায় প্রকাশ করে দেওয়ার হুমকি দেয়। এর পর থেকেই স্বামী-স্ত্রী মিলে হত্যার পরিকল্পনা করে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, গত বুধবার গভীর রাত পর্যন্ত বাড়ীর পাশেই বাকতা দক্ষিনপাড়া বাজারে চা বিক্রি করেন জাকির। পরের দিন বৃহস্পতিবার সকালে বাজারের পাশেই তার শ্যালিকা আফরোজা খাতুনের ঘরে ক্ষত বিক্ষত লাশ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী। আফরোজা থানায় গিয়ে হত্যার বিষয়টি পুলিশকে বিষয়টি জানালে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে।  

news24bd.tv/আজিজ

এই রকম আরও টপিক