গ্যাস আনতে ব্রুনাইয়ে প্রতিনিধিদল পাঠাবে সরকার
গ্যাস আনতে ব্রুনাইয়ে প্রতিনিধিদল পাঠাবে সরকার

সংগৃহীত ছবি

গ্যাস আনতে ব্রুনাইয়ে প্রতিনিধিদল পাঠাবে সরকার

অনলাইন ডেস্ক

ব্রুনাই থেকে দীর্ঘমেয়াদে গ্যাস আনতে সরকার সেখানে প্রতিনিধিদল পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।  

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এখন তো সব জায়গাতেই সংকট। যে যেভাবে পাচ্ছে সেভাবেই নেওয়ার চেষ্টা করছে। আমাদের গ্যাস সংকট মোকাবেলায় বাইরে থেকে গ্যাস আনার প্রক্রিয়া চলছে।

এই প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে ব্রুনাইতে টিম পাঠাচ্ছি। দীর্ঘমেয়াদি গ্যাস কীভাবে নিয়ে আসা যায়; তাদের নিমন্ত্রণের অপেক্ষায় আছি। আমাদের কী প্রয়োজন তাও জানিয়েছি।

শুক্রবার (১১ নভেম্বর) রাজধানীর বারিধারায় নিজ বাসভবনে তিনি এসব কথা বলেন।

সমুদ্র থেকে গ্যাস উত্তোলনের বিষয়ে তিনি বলেন, সাগর থেকে গ্যাস তোলার জন্য দুবার টেন্ডার দেওয়া হয়েছে। ডিসেম্বর-জানুয়ারিতে আবারও টেন্ডার দেওয়া হবে। সাগর থেকে গ্যাস তোলা কষ্টসাধ্য। বিনিয়োগ করেও সফলতা পাওয়ার শতভাগ সম্ভাবনা থাকে না। বাপেক্সকে দিয়ে এটা করা যাবে না। তবে বাপেক্স বিদেশি কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি করে কাজ করতে পারে।

এ দিকে বিদ্যুতের বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিদ্যুতের অবস্থা ভালো আছে। খুব ভালো না হলেও ভালোর দিকে যাচ্ছে। কিন্তু বিদ্যুতের দাম অনেক বেশি।

নসরুল হামিদ বলেন, বৃহস্পতিবার সৌদি রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে; তাদের মন্ত্রী আসছেন। ২০২৮-২৯ সালের দিকে সৌদি আরব থেকে গ্যাস নিতে পারব। আমাদের এখানে সোলারের ক্ষেত্রে বড় বিনিয়োগ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। গ্যাসের মাধ্যমে বিদ্যুৎ উৎপাদনের ব্যাপারেও কথা হয়েছে। তারা সোলারের ক্ষেত্রে ১০০০ মেগাওয়াট এমওইউ করার কথা জানিয়েছে।

এ সময় জ্বালানি নিয়ে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) সঙ্গে বাংলাদেশের কোনো কথা হয়নি বলেও জানান তিনি।